• জুলাই ১৮, ২০১৮
  • জাতীয়
  • 16
বিএনপি মাজা ভাঙা দল: খাদ্যমন্ত্রী

টাইমস্ বিডি ডেস্ক : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি না আসলে তাদের অস্তিত্ব থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘বিএনপি একটি মাজা ভাঙা দল। বিভিন্ন ছোটখাটো ঘটনাকে ইস্যু বানিয়ে তারা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের চেষ্টা করছে।’

বুধবার (১৮ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৫টায় কেরানীগঞ্জের হযরতপুরের আলিপুর এলাকায় আওয়ামী লীগের একটি বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

কামরুল ইসলাম বলেন, ‘দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য বিএনপি-জামায়াতের কিছু শিক্ষক কোটা সংস্কার আন্দোলনের নামে ছাত্রদের মাঠে নামিয়েছে। বিএনপি দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্র্রাসী দল হিসেবে স্বীকৃত। এ দলের নেতারা ইতিহাস বিকৃত করে বর্তমান প্রজন্মের কাছে তুলে ধরে তাদের বিভ্রান্ত করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি যদি একদিনের জন্য ক্ষমতায় আসে, রাস্তায় রক্তের বন্যা বইয়ে দেবে; দেশের মধ্যে সাম্প্রদায়িক হানাহানি সৃষ্টি করবে। আওয়ামী লীগের উন্নায়নকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য বিএনপি-জামায়াত নানাভাবে ষড়যন্ত্র করছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আগে বাজেট পাশ করার জন্য বিদেশিদের দিকে তাকিয়ে থাকতে হতো। কিন্তু বাংলাদেশ এখন অনেক বড় বাজেট পাশ করতে পারে। বিএনপি আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে, যানবাহন জ্বালিয়ে আমাদের অর্থনীকে পঙ্গু করে দিয়েছিল।’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া এতিমের টাকা চুরি করায় নিম্ন আদালত তাকে সাজা দিয়েছে। সে মুক্তি পাবে, আদৌ পাবে কিনা এবং সে আগামী সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবে কিনা, আদালতই এ সিদ্ধান্ত দেবেন।’

কেরানীগঞ্জবাসীর উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা ঘরে ঘরে গিয়ে আমাদের উন্নয়নের কথা তুলে ধরবেন। আগামী নির্বাচনে জয়লাভ করা ছাড়া আমাদের কোনও বিকল্প নাই।’

হযরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন– ঢাকা-২ আসন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক শফিউল আজম খান বারকু, সদস্য সচিব ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম, যুগ্ম-আহ্বায়ক হাজী আবু সিদ্দিক প্রমুখ।