• মার্চ ৩, ২০১৯
  • আন্তর্জাতিক
  • 14
কাশ্মীরে জামায়াত নিষিদ্ধ করার ফল হবে ভয়ংকর : মেহবুবা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি বলেছেন, ‘জম্মু ও কাশ্মীরে জামায়াত-ই-ইসলামী নিষিদ্ধ করার ফল হবে ভয়ংকর। তিনি হুঁশিয়ারির সুরে বলেন, ‘কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ফল ভুগতে হবে। প্রতিশোধ নিতে উপত্যকায় যেকোনো রকমের ঘটনা ঘটাতে পারে জামায়াত।’

শনিবার (০২ মার্চ) নিজ দল জম্মু-কাশ্মীর পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) দপ্তরে বসে এ কথা বলেন মেহবুবা মুফতি। তিনি দলটির সভাপতি।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর উপত্যকার সুরক্ষা বাড়াতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যার মধ্যে উপত্যকার বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা প্রত্যাহার করা হয়। পরে জামায়াত-ই-ইসলামীর জম্মু-কাশ্মীর শাখাকেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। এ দুই সিদ্ধান্তের কারণে কাশ্মীর উপত্যকায় শান্তি ফেরার বদলে অশান্তি আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পিডিপিপ্রধান মেহবুবা মুফতি।

মেহবুবা বলেন, ‘জামায়াত-ই-ইসলামী সেই অর্থে জঙ্গি সংগঠন নয়। তাদের নির্দিষ্ট সামাজিক ও রাজনৈতিক আদর্শ আছে। কোনো আদর্শকে এভাবে দমন করা নিন্দনীয়। দলটির তরুণ সদস্যদের গ্রেপ্তার করে কোনো লাভ হবে না। বরং তাদের প্রতিশোধস্পৃহা বেড়ে যাবে।’

বিজেপির উদ্দেশে মেহবুবা বলেন, ‘আপনাদের সঙ্গে আরএসএস, শিবসেনা, জনসংঘ আছে। যারা কেবল মাংসাশী সন্দেহে গণপ্রহার করেন। তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয় না। আর জামায়াত তো উপত্যকায় গরিব মানুষদের সাহায্য করে। স্কুল তৈরি করে ছোট ছোট বাচ্চাকে শিক্ষা দেয়। আর তাদেরই আপনারা ধরে ধরে জেলে পুরে দিতে চাইছেন। এর ফল ভয়ংকর হবে। দয়া করে জম্মু-কাশ্মীরকে জেলে পরিণত করবেন না।’

মেহবুবা মুফতি আরো বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মীরে পিডিপি-বিজেপি জোট থাকতে আমরা বিজেপিকে যা খুশি করতে দিইনি। কিন্তু এবার আর তা হচ্ছে না। এখন একজন কাশ্মীরি মার খেলে বাকিরা আনন্দ পাচ্ছেন।’

জম্মু-কাশ্মীরে পিডিপি-বিজেপি জোট সরকার ভেঙে যাওয়ার পর বর্তমানে সেখানে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি রয়েছে।