• জুলাই ৫, ২০১৯
  • খেলাধুলা
  • 24
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্কঃ ক্রিকেটের তীর্থস্থান খ্যাত লন্ডনের লর্ডসে পাকিস্তানের বিপক্ষে টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে নামছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের মঞ্চে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির এটি শেষ টস।

২০১৯ বিশ্বকাপে রাউন্ড রবিনে নিজেদের শেষ ম্যাচে এই দুই চিরশত্রু মুখোমুখি হচ্ছে শুক্রবার (০৫ জুলাই), বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়।

ভারতের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন আগেই ভেঙে গেছে বাংলাদেশের। তবে আসরে নিজেদের শেষ ম্যাচে জয় নিয়ে ফেরার আশায় চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে টাইগাররা। এই ম্যাচ জিতলে ৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার পঞ্চম স্থানে ওঠে আসবে মাশরাফির দল।

অন্যদিকে শেষ চারে যেতে হলে পাকিস্তানকে কেবল জিতলেই হবে না; টাইগারদের হারাতে হবে ৩১৬ রানের বিশাল ব্যবধানে। কারণ ইতোমধ্যে ১১ পয়েন্ট নিয়ে সেমিতে এক পা দিয়ে রেখেছে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশের বিপক্ষে জিতলে সরফরাজদের পয়েন্টও হবে ১১। তখন নেট রান রেটের হিসেবে এগিয়ে থাকা দল উঠবে সেমিফাইনালে। অবশ্য এখনও পযর্ন্ত নেট রান রেটে কিউইদের চেয়ে বেশ পিছিয়ে পাকিস্তান।

এই ম্যাচে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে লাল জার্সিতে দেখা যাবে টাইগারদের। অন্তত দু’টো ম্যাচ দ্বিতীয় জার্সিতে খেলার কথা থাকলেও গত আট ম্যাচের প্রতিটিতে সবুজ জার্সি পড়ে খেলেছে বাংলাদেশ।

ওয়ানডেতে মুখোমুখি লড়াইয়ে পাকিস্তান ৩১ বার ও বাংলাদেশ ৫ বার জয় পেয়েছে। তবে পরিসংখ্যানে বেশ পিছিয়ে থাকলেও টাইগারদের চার জয় এসেছে সবশেষ পাঁচবারের দেখায়। এর আগে বিশ্বকাপের মঞ্চে দু’দল মুখোমুখি হয়েছে মাত্র একবার। ১৯৯৯ বিশ্বকাপের সেই দেখায় পাকিস্তানকে ৬২ রানে হারায় বাংলাদেশ।

এই ম্যাচে ৩ রান করলে ২০১৯ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় শীর্ষস্থানে ওঠে আসবেন সাকিব আল হাসান। ৭ ম্যাচে ৫৪৪ রান নিয়ে এখন পযর্ন্ত শীর্ষে আছেন রোহিত শর্মা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সাকিবের রান ৫৪২।

এবং ১৯ রান করলে সাকিব বিশ্বকাপে সর্বকালের সর্বোচ্চ রানের মালিকের ১০ জনের খাতায় ঢুকে যাবেন। এই তালিকায় উপরের দিকে আছেন শচীন টেন্ডুলকার, রিকি পন্টিং, কুমার সাঙ্গাকারা, ব্রায়ান লারার মতো কিংবদন্তিরা। আর ১৮ রান করলে সব বিশ্বকাপ মিলিয়ে সাকিবের মোট রান হবে ১১০০। সম্ভাবনা আছে তার আরও একটি বিশ্বকাপ খেলার।

এছাড়া দুই উইকেট শিকার করলে অধিনায়ক হিসেবে ১০০ উইকেট নেওয়ার মাইলফলক গড়বেন মাশরাফি। ৩৫ বছর বয়সী ম্যাশের এটি শেষ বিশ্বকাপ।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, সাইফউদ্দিন আহমেদ, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

পাকিস্তান একাদশ: ইমাম-উল-হক, ফখর জামান, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ হারিস সোহেল, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ইমাদ ওয়াসিম, ওহাব রিয়াজ, শাদাব খান, মোহাম্মদ আমির ও শাহিন আফ্রিদি।