• জুলাই ৮, ২০১৯
  • মৌলভীবাজার
  • 32
শ্রীমঙ্গলে চলন্ত ট্রেনে দুর্বৃত্তের ছোড়া পাথরে গার্ড আহত

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে দুর্বৃত্তদের ছোড়া পাথরের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন আখাউড়া হেডকোয়ার্টার রেলওয়ে পরিচালক (গার্ড) এসএম আবদুল কুদ্দস।

শনিবার সন্ধ্যায় আখাউড়া-সিলেট রেলপথের শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশনের দক্ষিণ আউটার সিগন্যালের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

আহত আবদুল কুদ্দুস কমলাপুর রেলওয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে রোববার সকালে আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনের সুপারিনটেনডেন্ট মো. খলিলুর রহমান যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন।

আখাউড়া রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, যাত্রীবাহী জালালাবাদ (ডাউন-১৪) মেইল ট্রেন নিয়ে সিলেট থেকে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে যাচ্ছিল। ওই ট্রেনে গার্ডের (পরিচালক) দায়িত্ব পালন করছিলেন আখাউড়া হেডকোয়ার্টার রেলওয়ে পরিচালক এসএম আবদুল কুদ্দুস।

ট্রেনটি শনিবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশন যাত্রা বিরতি শেষে ছেড়ে দক্ষিণ আউটার সিগন্যালের কাছে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা ট্রেন লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে। একটি পাথর ট্রেনের গার্ড আবদুল কুদ্দুসের বাহু ঘষে কপালে গিয়ে ঠেকে। এতে তিনি গুরুতর জখম হন। এসময় তার কপালে গভীর জখমের কারণে প্রচুর রক্তক্ষরণও হয়।

আখাউড়া হেডকোয়ার্টার রেলওয়ে পরিচালক (গার্ড) মো. মিজানুর রহমান বলেন, চট্টগ্রামগামী জালালাবাদ মেইল ট্রেনটি শ্রীমঙ্গল স্টেশন ছেড়ে দক্ষিণ আউটার সিগন্যাল অতিক্রম করার সময় কে বা কারা চলন্ত ট্রেনে পাথর ছুঁড়ে মারে। একটি পাথর তার বাহু ঘেঁষে কপালে প্রচণ্ড আঘাত করে। সেখানেই তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

তিনি বলেন, ট্রেনটি আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে পৌঁছার পর তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনের সুপারিনটেনডেন্ট খলিলুর রহমান জানান, পাথরের আঘাতে গার্ডের কপালে ৮টি সেলাই দেয়া হয়েছে। এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা অত্যান্ত দুঃখজনক। অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান তিনি।