• জুলাই ১১, ২০১৯
  • লিড নিউস
  • 10
গোয়াইনঘাটে টানা বর্ষণ আর পাহাড়ী ঢলে বন্যা, সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের ফলে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা আবারো দেখা দিয়েছে বন্যা।

এতে পিয়াইন ও সারী নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে উপজেলার অধিকাংশ এলাকা প্লাবিত হয়ে পড়েছে।এতে বিপাকে পড়েছেন পানিবন্দি সাধারণ মানুষ।

এরই মধ্যে পানি বৃদ্ধির ফলে গোয়াইনঘাট-সারীঘাট, সালুটিকর-গোয়াইনঘাট, হাতির পাড়া-ফতেহপুর সড়ক পানির নিচে তলিয়ে গেছে, বন্ধ রয়েছে সড়ক যোগাযোগ ।

এদিকে ভারতের মেঘালয়ে ভারি বর্ষণ ও বৃষ্টিপাতের কারণে বাংলাদেশ অভ্যন্তরের পিয়াইন ও সারী অববাহিকায় পানি বৃদ্ধির কারণেই উপজেলার সবকটি হাওর তলিয়ে গেছে। পিয়াইন ও সারী নদী দিয়ে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে উপজেলার পূর্ব জাফলং, আলীরগাঁও, রুস্তমপুর, ডৌবাড়ী, লেঙ্গুড়া, তোয়াকুল ও নন্দীরগাঁও ইউনিয়নের প্রায় ৯৫ ভাগ গ্রামের রাস্তাঘাট ও বাড়িঘর পানিতে প্লাবিত হয়ে উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

বাড়ী ঘর প্লাবিত হওয়ার পাশাপাশি গোচারণ ভূমি পানি বন্ধী হওয়ায় গো-খাদ্য সঙ্কট দেখা দিয়েছে। গোয়াইনঘাটের আলীরগাঁও ইউনিয়নের হিদাইর খাল বাঁধটি উপজেলার নিম্নাঞ্চল বাসীর জন্য অভিশাপে পরিণত হচ্ছে। হিদাইর খাল বাঁধ নির্মাণের ফলে গোয়াইনঘাটের তিতকুল্লী, নাইন্দা, বুধিগাঁও, বাউরভাগ হাওর, আসামপাড়া হাওর, সাংকীভাঙ্গা, ৯ম খণ্ড, ৮ম খণ্ড, লাখেরপাড়, কাকুনাখাইসহ নিম্নাঞ্চলে পানি বন্দি হয়ে মানুষজন বিপদগ্রস্ত হয়েছেন। এছাড়াও ডৌবাড়ী হাকুর বাজার কাপনা নদীর উপর নির্মিত হাকুর বাজার ব্রীজের সাইট ভেঙে যানবাহন ও মানুষের চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল জানান, আমি ইতিমধ্যে বন্যাকবলিত কিছু এলাকা পরিদর্শন করেছি। পানিবন্দী মানুষজন অত্যন্ত কষ্টে আছে। তিনি বলেন সরকারের পক্ষ থেকে পানিবন্ধি মানুষের জন্য ৬ টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে।