• আগস্ট ১৭, ২০১৯
  • আন্তর্জাতিক
  • 22
কলকাতায় বজ্রপাতে আহত ৬ বাংলাদেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে নয়জন নিহত হয়েছে, এর মধ্যে তিনজন কলকাতার নাগরিক। গতকাল শুক্রবারের এ ঘটনায় আহত ২১ জনের মধ্যে ছয়জন বাংলাদেশি।

গতকাল ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল দেখতে গিয়ে আহত হন ছয় বাংলাদেশি। আহত ব্যক্তিরা হলেন যশোরের কাকলি রানী, অবন্তী বিশ্বাস, বৃতী বিশ্বাস, খুলনার জয়ন্তী রানী সরকার, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার রিয়াজউদ্দিন এবং কাজী মিরাজউদ্দিন। আহত ব্যক্তিদের কলকাতার পিজি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পশ্চিমবঙ্গের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু ছুটে যান পিজি হাসপাতালে।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে নিহত ব্যক্তিরা হলেন কলকাতার সুবীর পাল, অপর্ণা মণ্ডল, মহম্মদ আনোয়ার, পুরুলিয়া রীনা বাউরি, রঞ্জিত বাউরি ও রিঙ্কু বাউরি, বেলদার স্বপন জানা, পটাশপুরের ধীরেন মুনিয়া এবং বারইপুরের আনন্দ নস্কর।
কলকাতার বহু সড়কই আজ শনিবারও পানিতে তলিয়ে আছে। স্কুল-কলেজ বন্ধ রয়েছে। অধিকাংশ এলাকায় হাটবাজারও খোলেনি। একই চিত্র উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া এবং হুগলি জেলায়ও। কলকাতা বিমানবন্দরে পানি জমায় বিমান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। বিলম্বে ওঠানামা করছে বিমান। বহু এলাকার রেললাইনেও পানি জমে ব্যাহত হচ্ছে রেল চলাচল, ট্রাম চলাচলও।

কলকাতার সাউদার্ন অ্যাভিনিউ, বিবাদীবাগ, নিউ আলিপুর, বেহালা, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ, পার্ক সার্কাস, ইকবালপুর, সায়েন্স সিটি, ক্যামাক স্ট্রিট, বিড়লা প্ল্যানেটারিয়াম, টেংরা, নিক্কোপার্ক, শ্যামবাজার, বেলগাছিয়া, নারকেলডাঙ্গা, শিয়ালদহ, হাওড়া স্টেশনেও পানি জমে গেছে। এসব এলাকা এখন পানির নিচে। প্রবল বৃষ্টিতে কলকাতা শহরের বিভিন্ন এলাকায় গাছ উপড়ে পড়েছে। কলকাতা পৌর করপোরেশন শহরের রাস্তার ম্যানহোলের ঢাকনা খুলে দিয়ে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নিয়েছে। লাগিয়েছে বহু পাম্পও।