• সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯
  • শীর্ষ খবর
  • 74
পীযূষ সহ আটক তিনজন অস্ত্র-মাদক মামলায় কারাগারে

নিউজ ডেস্কঃ র‌্যাবের অভিযানে আটক আলোচিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পীযূষ কান্তি দে’ সহ আটদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে তাদের সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯।

এর আগে বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে সিলেট নগরের মির্জাজাঙ্গালের আস্তানা ঘেরাও করে তাকে আটক করে র‌্যাব।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মিয়া বলেন, পীযূষের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় দুই রাউন্ডগুলিসহ একটি রিভলবার ও তিনটি রামদা জব্দ দেখানো হয়েছে। এছাড়া তার কাছ থেকে পাঁচ হাজার ৫৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওসি বলেন, মামলায় তার সঙ্গে আটক তিন সহযোগীকেও গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তারা হলেন- সিলেট নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বাপ্পা পাল, মন্টি রায় এবং জুয়েল। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে তাদের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদনও করা হয়েছে।

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, চাঁদাবাজি, মারধরসহ অসংখ্য অভিযোগও মামলায় রয়েছে পীযূষের বিরুদ্ধে।

গত ৬ আগস্ট জিন্দাবাজারে পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে তিন প্রবাসীকে মেরে রক্তাক্ত করেন পীযূষের অনুসারীরা। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। তাতে আবারও সমালোচনায় পড়েন কিছুদিন আত্মগোপনে থাকা পীযূষ।

এর আগে ১১ মামলার হুলিয়া মাথায় নিয়ে রাজপথে প্রকাশ্যে বন্দুক উঁচিয়ে গাড়ি ভাঙচুর ও ব্যাংকে হামলা করে আতঙ্ক ছড়ান পীযূষ। এছাড়া তিনি মির্জাজাঙ্গাল এলাকায় একটি বাড়ি দখল করে আস্তানা গড়ে তোলেন। চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেও বিভিন্নভাবে ছাড়া পেয়ে যান তিনি।

পীযূষ নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি। তিনি ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ছিলেন।