• অক্টোবর ১৬, ২০১৯
  • শীর্ষ খবর
  • 59
কোম্পানীগঞ্জ সীমান্তে ভারতীয় মহিষের তাণ্ডবে আহত ১৫

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সীমান্ত এলাকায় ভারত থেকে নেমে আসা মহিষের তাণ্ডবে অন্তত ১৫জন আহত হয়েছে।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) উপজেলার ভোলাগঞ্জ, পাড়ুয়া, কাঁঠালবাড়ি, লম্বাকান্দি গ্রামগুলোতে তাণ্ডব চালায় এই মহিষটি।

স্থানীয়রা জানান, সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলা কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে লোকালয়ে ঢুকে পড়ে ভারতীয় একটি মহিষ। একপর্যায়ে ভোলাগঞ্জ, শাহ আরেফিন বাজার ও পাড়ুয়া এলাকার লোকজন মহিষটিকে আটকের চেষ্টা করলে অন্তত ৭ জন আহত হয়। এরপর কাঁঠালবাড়ি ও লম্বাবাড়ি গ্রামে ঢুকে আরও ৭ জনকে আহত করে।

মহিষের আক্রমণে কাঁঠালবাড়ি ও লম্বাকান্দি গ্রামের আহতরা হলেন- রিয়াজ আলী (৭০), আব্দুল হাসিম (৫৫), জামাল উদ্দিন (৩৫), আবুল কালাম (২৫) ও আব্দুল গণি (৫৫)। আহত জামাল উদ্দিনকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে সকাল ১০টার দিকে উত্তর রণিখাই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নজির উদ্দিন তার লাইসেন্সধারী বন্দুক দিয়ে মহিষটিকে গুলি করেন। কিন্তু গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়া মহিষের হামলায় তিনিও আহত হন।

উপজেলার পশ্চিম ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন বলেন, মহিষটি ধরতে সিলেটের বন কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) সহায়তা চাওয়া হয়েছে। সিলেট থেকে চেতনানাশক স্প্রে এনে মহিষটাকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করবেন জানিয়েছেন বন কর্মকর্তারা।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, মহিষটির আক্রমণে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। দুপুর ১টার দিকে বন বিভাগের সহায়তায় মহিষটিকে চেতনানাশক স্প্রে দিয়ে নিয়ন্ত্রণের করা হয়েছে।