• ডিসেম্বর ২৮, ২০১৯
  • খেলাধুলা
  • 54
বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা বড় বড় ছক্কা মারছেন

ক্রীড়া ডেস্কঃ ইমরুল কায়েস কাল ঢাকা প্লাটুনের হাসান মাহমুদের বলে এমন এক ছক্কা মারলেন, বলটা অল্পের জন্য গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডের ছাদ পেরিয়ে স্টেডিয়ামের বাইরে গিয়ে পড়েনি! দূরত্বের হিসেবে ছক্কাটা ছিল ১০৩ মিটারের।

১০০ মিটার পেরোনো ছক্কা মানেই সেটা অবশ্যই বিশাল! তবে ইমরুলের ১০৩ মিটারের ছক্কা কিন্তু টুর্নামেন্টের সেরা পাঁচে ঠাঁই পায়নি। বাঁহাতি ওপেনার নিজেও কাল দাবি করেছেন, ক্যারিয়ারে তিনি এর চেয়ে বড় ছক্কা মেরেছেন, ‘জানি না এটাই আমার ক্যারিয়ারের বড় ছক্কা কি না। এর আগেও হয়তো মেরেছি (বড় ছক্কা)। এ মাঠেই হয়তো মেরেছি। (ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে) মোহামেডানের বিপক্ষে রানা নাভিদকে। সেটাও প্রায় স্টেডিয়ামের বাইরে গিয়েছিল। বড় বড় ছক্কা তো অনেক জায়গায় মেরেছি।’

প্রায়ই শোনা যায় বাংলাদেশে পাওয়ার হিটারের বড় অভাব, বড় ছক্কা মারার ব্যাটসম্যানও তাই কম! এই বিপিএল বলছে ভিন্ন কথা। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরাও মারছেন বড় বড় ছক্কা! কাল পর্যন্ত হয়েছে টুর্নামেন্টের ২২টি ম্যাচ। এই ২২ ম্যাচে সেরা পাঁচ ছয়ের তিনটিই মেরেছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা।

টুর্নামেন্ট সম্প্রচারে দায়িত্বে থাকা প্রতিষ্ঠানের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ছক্কাটা মেরেছেন মাহমুদউল্লাহ—১১৩ মিটার। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক বিশাল ছক্কাটা মেরেছিলেন জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে। মাহমুদউল্লাহর পরই আছেন তাঁর সতীর্থ নুরুল হাসান। নুরুল মেরেছেন ১১০ মিটারের ছক্কা। তিনে কুমিল্লা ওয়ারিয়ার্সের ডেভিড মালান—১০৯ মিটার। ১০৮ মিটারের ছক্কা মেরে চারে আছেন খুলনা টাইগার্সের রাইলি রুশো। খুলনার আরেক ব্যাটসম্যান শামসুর রহমান মেরেছেন ১০৬ মিটারের ছক্কা।

বড় ছক্কা দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের একমাত্র মানদণ্ড নয়। তবে ২০ ওভারের ক্রিকেটে বড় ছক্কা মারার অভ্যাস থাকা মানেই ‘বিগ হিটে’ দ্রুত দলের রানের গতি বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ। বিপিএলে সুযোগটা যদি মাহমুদউল্লাহরা নিয়মিত কাজে লাগাতে পারেন, তাতে বাংলাদেশেরই লাভ।