• জানুয়ারি ১৯, ২০২০
  • জাতীয়
  • 81
সেই ডিআইজি মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল

নিউজ ডেস্কঃ ঘুষ লেনদেনের অভিযোগের মামলায় পুলিশের সাময়িক বরখাস্ত উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমান ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সাময়িক বরখাস্ত পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে দুদক।

ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতে আজ রোববার সকালে দুদক এই অভিযোগপত্র জমা দেয়।

দুদকের মামলা থেকে বাঁচিয়ে দিতে তৎকালীন ডিআইজি মিজানুর রহমানের কাছ থেকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন দুদকের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। অনুসন্ধানে এ বিষয়টির প্রমাণ পাওয়ায় গত বছর মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের পরিচালক মোহাম্মদ ফানাফিল্লাহ। মামলাটি তদন্ত করে তিনি আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে করা মামলার এজাহারে বলা হয়, খন্দকার এনামুল বাছির কমিশনের দায়িত্ব পালনকালে অসৎ উদ্দেশ্যে নিজে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার আশায় ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। তিনি ডিআইজি মিজানুর রহমানকে অবৈধ সুযোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে তাঁর অবৈধভাবে অর্জিত ৪০ লাখ টাকা ঘুষ হিসেবে নিয়েছেন। তিনি ঘুষের এই টাকার অবস্থান গোপন করেছেন। এর মাধ্যমে তিনি দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন ও মানি লন্ডারিং আইনে অপরাধ করেছেন।

একইভাবে ডিআইজি মিজানুর রহমান সরকারি কর্মকর্তা হয়েও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়ার আশায়, অর্থাৎ অনুসন্ধানের ফলাফল নিজের পক্ষে নেওয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে খন্দকার এনামুল বাছিরকে অবৈধভাবে প্রভাবিত করেছেন। এ জন্য ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দিয়ে পরস্পর যোগসাজশে প্রচলিত আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।