• মে ১৬, ২০২০
  • আন্তর্জাতিক
  • 209
রেস্তোরাঁ ফিলাপ, ফিরিয়ে দেওয়া হলো নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বসার আসন ফাঁকা না থাকায় এক রেস্তোরাঁর সামনে থেকে সঙ্গীসহ ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডানকে। তবে অনেক্ষণ অপেক্ষার পর আসন খালি হওয়ার পর সঙ্গীকে নিয়ে তিনি সেখানে খাবার খেয়েছেন। ঘটনার অস্বাভাবিকতার কারণে অনেকে বিষয়টিতে আশ্চর্য হয়েছেন।

শনিবার সকালে দেশটির ওয়েলিংটন শহরের অলিভ নামের একটি রেস্তোরাঁয় সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ডকে নিয়ে নাস্তা করতে যান নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডান। কিন্তু ওই সময় রেস্তোরাঁটি ছিল মানুষে পূর্ণ। তাই দরজায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মী তাদের ফিরিয়ে দিয়ে অপেক্ষা করতে বলেন।

তখন ওই রেস্তোরাঁয় খাবার খাচ্ছিলেনে এমন একজন টুইটারে লিখেছেন, ‌‘ওহ আল্লাহ, জেসিন্ডা আর্ডার্ন এইমাত্র অলিভে প্রবেশ করার চেষ্টা করেন কিন্তু ভেতরে মানুষে পূর্ণ থাকায় সঙ্গীসহ তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হলো।’ তার মতো আরও অনেকেই বিষয়টি দেখে অবাক হয়েছেন।

এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ড উল্লিখিত ওই টুইট বার্তায় পাল্টা মন্তব্যে লিখেছেন, ‌‘প্রকৃতপক্ষে এই ঘটনার পুরো দায় আমি নিচ্ছি। কেননা আমি কোনো কিছুর আয়োজন ঠিকমতো করিনি এবং কোনো রেস্তোরাঁও বুক করিনি।’

করোনার বিস্তার রোধে সফল হয়েছে নিউজিল্যান্ড। গত বৃহস্পতিবার থেকে দেশটি ‌‘অ্যালার্ট-২’ এ প্রবেশ করেছে। কিউইরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছে। খুলে দেওয়া হয়েছে রেস্তোরাঁ ও ক্যাফে। তবে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা ছাড়াও ১০ জনের বেশি সমবেত হওয়ায় রয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

করোনা মহামারির সার্বক্ষণিক তথ্য প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস ডট ইনফোর সবশেষ তথ্য অনুসারে, নিউজিল্যান্ডে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৪৯৮ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ২১ জন মারা গেলেও চিকিৎসা শেষে এখন ১ হাজার ৪২৮ জন সুস্থ।

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বসার আসন ফাঁকা না থাকায় এক রেস্তোরাঁর সামনে থেকে সঙ্গীসহ ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডানকে। তবে অনেক্ষণ অপেক্ষার পর আসন খালি হওয়ার পর সঙ্গীকে নিয়ে তিনি সেখানে খাবার খেয়েছেন। ঘটনার অস্বাভাবিকতার কারণে অনেকে বিষয়টিতে আশ্চর্য হয়েছেন।

শনিবার সকালে দেশটির ওয়েলিংটন শহরের অলিভ নামের একটি রেস্তোরাঁয় সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ডকে নিয়ে নাস্তা করতে যান নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডান। কিন্তু ওই সময় রেস্তোরাঁটি ছিল মানুষে পূর্ণ। তাই দরজায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মী তাদের ফিরিয়ে দিয়ে অপেক্ষা করতে বলেন।

তখন ওই রেস্তোরাঁয় খাবার খাচ্ছিলেনে এমন একজন টুইটারে লিখেছেন, ‌‘ওহ আল্লাহ, জেসিন্ডা আর্ডার্ন এইমাত্র অলিভে প্রবেশ করার চেষ্টা করেন কিন্তু ভেতরে মানুষে পূর্ণ থাকায় সঙ্গীসহ তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হলো।’ তার মতো আরও অনেকেই বিষয়টি দেখে অবাক হয়েছেন।

এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গী ক্লার্ক গেফোর্ড উল্লিখিত ওই টুইট বার্তায় পাল্টা মন্তব্যে লিখেছেন, ‌‘প্রকৃতপক্ষে এই ঘটনার পুরো দায় আমি নিচ্ছি। কেননা আমি কোনো কিছুর আয়োজন ঠিকমতো করিনি এবং কোনো রেস্তোরাঁও বুক করিনি।’

করোনার বিস্তার রোধে সফল হয়েছে নিউজিল্যান্ড। গত বৃহস্পতিবার থেকে দেশটি ‌‘অ্যালার্ট-২’ এ প্রবেশ করেছে। কিউইরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছে। খুলে দেওয়া হয়েছে রেস্তোরাঁ ও ক্যাফে। তবে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা ছাড়াও ১০ জনের বেশি সমবেত হওয়ায় রয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

করোনা মহামারির সার্বক্ষণিক তথ্য প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস ডট ইনফোর সবশেষ তথ্য অনুসারে, নিউজিল্যান্ডে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৪৯৮ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ২১ জন মারা গেলেও চিকিৎসা শেষে এখন ১ হাজার ৪২৮ জন সুস্থ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •