• জুলাই ১৯, ২০২০
  • খেলাধুলা
  • 36
প্রাণ ফিরছে দেশের মাঠে

ক্রীড়া ডেস্কঃ হোম অব ক্রিকেট এখন ক্রিকেটারদের কলতানে মুখর, তা বলা যায় না। তবে নীরব-নিথর শেরে বাংলায় খানিক প্রাণের সঞ্চার ঘটেছে। অবশেষে আজ (রোববার) সকালে শেরে বাংলার একাডেমি মাঠে স্বশরীরে উপস্থিত জাতীয় দলের তিন ক্রিকেটার-মুশফিকুর রহীম, মোহাম্মদ মিঠুন ও শফিউল ইসলাম।

আগেই জানা, জাতীয় দলের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুমিনুল হক ঘরেই ফিজিক্যাল ট্রেনিং করবেন। শেরে বাংলায় আসবেন না। তারা আসেননিও। তবে যে চারজনের আসার কথা হোম অব ক্রিকেটে, তার তিনজন- মুশফিক, মিঠুন আর শফিউল আজ প্রথম দিন এসেছেন। ইমরুল কায়েস আসবেন কাল সোমবার।

যার দিকে সবচেয়ে বেশি নজর, সেই মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিক ঠিক এসে হাজির। রোববার সকালে ঘড়ির কাঁটা ৯টা ছোঁয়ার আগেই শেরে বাংলার একাডেমি মাঠে এসে উপস্থিত উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান। সঙ্গে মোহাম্মদ মিঠুন।

মুশফিক এসে একাডেমি মাঠের সবুজ চত্বরে প্রায় আধঘন্টা রানিং ও স্ট্রেচিং করে তারপর গেলেন ইনডোরে ব্যাটিং প্র্যাকটিস করতে। আর মিঠুন সরাসরি সকাল নয়টায় এসেই সোজা ইনডোরে ব্যাটিংয়ে নেমে পড়েন। আর পেসার শফিউল ইসলাম আসলেন সকাল ১১টায়। মোদ্দা কথা, এই তিনজনের কারও সাথে কারও দেখা নেই।

এক সঙ্গে রানিং, ব্যাটিং কিংবা বোলিং প্র্যাকটিসও করেননি। প্রত্যেকের প্র্যাকটিস শিডিউল আলাদা। সময়সূচি ও ধরন আগে থেকেই ঠিক করা। একজন যখন রানিং করবেন, অন্যজন তখন ব্যাটিংয়ে থাকবেন। এভাবেই যাতে তাদের একসঙ্গে হতে না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রেখে শিডিউল করা হয়েছে।

এদিকে শুরুতে বলা হয়েছিল, শুধু ফিজিক্যাল ট্রেনিং আর জিমওয়ার্ক করা যাবে। তবে শেষ মুহূর্তে সেখান থেকে সরে এসেছে ক্রিকেট অপারেশন্স। শেরে বাংলার সেন্টার উইকেটে কিংবা একাডেমি মাঠের নেটে নয়, ইনডোরে ব্যাটিং অনুশীলনের সুযোগ করে দেয়া হয়েছে। আর রানিংটা করতে হবে একাডেমি মাঠে।

সাংবাদিকদের মাঠের ভিতরে প্রবেশের সুযোগ দেয়া হয়নি। এক নম্বর প্লাজা গেট দিয়ে ঢুকে একাডেমি মাঠের পূর্ব দিকে নেটের বাইরে যে লন আছে, সেখানে দাঁড়িয়ে তারা মুশফিক মিঠুনের অনুশীলন করা দেখেছেন। সবাইকে এক নম্বর প্লাজা গেট দিয়েই প্রবেশ করতে হয়েছে।

  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    15
    Shares