• নভেম্বর ৮, ২০২০
  • মৌলভীবাজার
  • 43
শ্রীমঙ্গল দুর্ঘটনায় ১৩শ ফুট রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের সাতগাঁও রেলওয়ে স্টেশনের পাশে রেলের ৭ বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় রেললাইনের ১৩০০ ফুট জায়গা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৷ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী (পূর্ব) সুবক্ত গীন ৷

তিনি জানান, রেলের ১৩০০ ফুট লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গিয়েছিল। ২৩ ঘণ্টার চেষ্টায় রেলওয়ের প্রায় ১৫০ জন কর্মী কাজ করে পথটি ঠিক করেছেন।

রোববার (৮ নভেম্বর) শায়েস্তাগঞ্জের ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী (পথ) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, অতিরিক্ত গতির কারণে ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। সম্ভবত গতি বেশী থাকার কারণেই গাড়িটি লাইনচ্যুত হয়েছে। প্রাথমিক অনুসন্ধানে আমরা অন্য কিছু পাইনি। রেললাইনে তেমন কোন ত্রুটি ছিলো না। ট্রেন যখন পাহাড়ি এলাকা অতিক্রম করে তখন স্বাভাবিকভাবেই গাড়িটা কিছুটা জাম্প করে। এই জাম্পিং করার কারণে অনেক সময় গাড়ীর চাকা ট্র্যাকের বাইরে চলে যায়। প্রাথমিকভাবে আমরা এটিই সন্দেহ করছি। তবে তদন্ত কমিটির তদন্তে মুল ঘটনা বেড়িয়ে আসবে।

এদিকে এই ঘটনাটিতে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ঢাকা) মঈনুল ইসলামের নেতৃতে এই কমিটিতে আছেন বিভাগীয় প্রকৌশলী (ঢাকা) সুলতান আলী, বিভাগীয় সংকেত ও টেলিযোগাযোগ প্রকৌশলী (ঢাকা) আবু হেনা, বিভাগীয় প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) রেজাউল করিম। বিভাগীয় যন্ত্র প্রকৌশলী (ওয়াগন) রেজাউল করিম।

রেলওয়ের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা শওকত জামিল মহসিন বলেন, মোট কতটুকু ক্ষতি হয়েছে সেটা তদন্ত কমিটি আমাদের রিপোর্ট দিবে। এই তেলগুলো মেঘনা পেট্রোলিয়ামের ছিলো। তারা যদি মনে করে তাদের ক্ষতি হয়েছে তারা আমাদের বলবে আমরা সেটা তদন্ত করে দেখে ব্যবস্থা নিবো।

তবে এই দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান মইনুল হোসেন সিলেটটুডেকে জানিয়েছেন, তারা এখন এই ঘটনার ফ্যাক্ট এবং ফাইন্ডিংস নিয়ে কাজ করছেন ৷ কমিটির সকল সদস্য আলাদাভাবে রিপোর্ট দিবেন। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট দেয়া হবে ৷

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares