• এপ্রিল ৭, ২০২০
  • বিজ্ঞপ্তি
  • 288
ছাতকে ১০ হাজার মানুষের মধ্যে মিজান চৌধুরীর খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শুরু

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ছাতক-দোয়ারা বাজার সুনামগঞ্জ- ৫ আসনের বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজান ছাতক-দোয়ারা বাজারের অসহায় গরীব দুঃখী ১০ হাজার মানুষকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছেন। এই লক্ষ্যে মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকাল থেকে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শুরু করেন তিনি।

বিএনপির চেয়ার পারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনা ও নিজ তাগিদে তিনি অসহায় মানুষের পাশে গিয়ে সহায়তা করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় অঘোষিত লকডাউন চলছে সারা দেশব্যাপী। যার ফলে ছাতক-দোয়ারা বাজারের দিনমজুর, রিকশা শ্রমিক, গরীব মেহনতি মানুষ অনেক কষ্টে দিন অতিক্রম করছেন। তাদের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব করতে তিনি তার প্রবাসী ৪ ভাইয়ের সহযোগিতায় খাদ্য ফান্ড তৈরি করে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

ছাতক-দোয়ারা বাজার উপজেলার ২২ ইউনিয়নও ১টি পৌরসভায় তিনিসহ তার দলের নেতাকর্মীরা খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিবেন বলে তিনি জানান। খাদ্য সামগ্রী বিতরণের প্রথম দিনে গোবিন্দগঞ্জ সৈদেরগাও ইউনিয়ন, ছৈলা আফজলাবাদ ইউনিয়ন, উত্তর খুরমা ইউনিয়ন, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়ন, ও দোলারবাজার ইউনিয়ন প্রায় ২ হাজার দরিদ্র মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে তিনি খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে সকলপ্রকার গনজামায়েত নিষিদ্ধ করায় পর্যায়ক্রমে বাকি সব জায়গায় খাদ্যসামগ্রী স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাধ্যমে সবার ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজান বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সবাইকে ঘরে থাকতে হচ্ছে। যার ফলে দরিদ্র মানুষজন অনেক কষ্টের মধ্যে আছেন। তাদের এই অবস্থা দেখে আমাদের কষ্ট হয়। তাই নিজের বিবেকের তাগিদে ছাতক দোয়ারা বাজারের ১০ হাজার মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়া এই গরীব মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির চেয়ার পারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও নির্দেশ দিয়েছেন। তাই আমার প্রবাসী ৪ ভাইয়ের সহায়তায় একটি খাদ্য ফান্ড গঠন করে মানুষজনকে সহায়তা করার চেষ্টা করছি।

তিনি বলেন, আমার দলের নেতাকর্মী মাধ্যমে প্রতিটি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের তালিকা করে খাদ্য সামগ্রী তাদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হবে। আমি মনে করি যারা বিত্তবান রয়েছেন, যারা প্রচুর অর্থের মালিক রয়েছেন দেশের এই ক্রান্তিকালে যার যার অবস্থান থেকে যার যার এলাকায় অসহায় মানুষকে সহযোগিতা করার জন্য আমি অনুরোধ জানাচ্ছি।

এসময় তিনি সকলকে নিরাপদে থাকতে ঘরে থাকা, সমাবেশ ও জনসমাগম এড়িয়ে চলার জন্য অনুরোধ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *