• এপ্রিল ৮, ২০২০
  • শীর্ষ খবর
  • 470
মাধবপুরে ক্রিকেট খেলতে না দেয়ায় পুলিশকে ধাওয়া, গুলিতে আহত পুলিশ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে খেলা বন্ধের কথা বলায় পুলিশকে ধাওয়া করেছে একদল যুবক। এ সময় অসাবধানতাবশত পিস্তল থেকে গুলি বের হয়ে শাহীন মিয়া নামে পুলিশের এক এএসআই আহত হয়েছেন।

বুধবার (০৮ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার গোবিন্দপুর স্কুলের খেলার মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার দুপুরে গোবিন্দপুর স্কুলের মাঠে অর্ধশত যুবক ক্রিকেট খেলছিল। খবর পেয়ে কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শাহীন মিয়া ফোর্স নিয়ে খেলার মাঠে আসেন। সেখানে গিয়ে করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে খেলা বন্ধের কথা বলেন তিনি।

এ অবস্থায় কতিপয় যুবক পুলিশের সঙ্গে তর্কে জড়ায়। পরে এএসআই শাহীন চলে আসার পথে একদল যুবক পুলিশকে ধাওয়া করে। এ সময় অসাবধানতাবশত নিজ পিস্তল থেকে গুলি বের হয়ে এএসআই শাহীন মিয়ার বাম পায়ে লাগে। এতে তিনি আহত হন। তাকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।

মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এএইচএম ইসতিয়াক মামুন বলেন, গুলিতে আঘাতপ্রাপ্ত এএসআই শাহীন মিয়াকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তিনি আশঙ্কামুক্ত।

এ ঘটনার খবর পেয়ে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা, মাধবপুর থানার ওসি মো. ইকবাল হোসেন ও পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর হাসপাতালে ছুটে যান।

মাধবপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন বলেন, পায়ে গুলি লেগে আহত হয়েছেন এএসআই শাহীন মিয়া। তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তিনি সুস্থ আছেন।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা বলেন, আমি একটি মামলার তদন্তে মাধবপুর ছিলাম। এএসআই শাহীন আহত হওয়ার খবর পেয়ে হাসপাতালে যাই। তার অবস্থা ও চিকিৎসার খবর নিয়েছি। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাধবপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর বলেন, খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন, ওসিসহ আমরা ঘটনাস্থলে আসি। এ ঘটনায় কেউ জড়িত থাকলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •