• আগস্ট ২৪, ২০২০
  • শীর্ষ খবর
  • 145
যুবলীগ নেতার স্ত্রীকে মারধর, থানায় অভিযোগ

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট নগরীর দাড়িয়াপাড়া এলাকায় পাওনা টাকা ফেরত ও পিতার সম্পত্তি বুঝিয়ে দেয়ার কথা বলায়, পিটিয়ে আহত করা হয়েছে এক যুবলীগ নেতার স্ত্রীকে। সিলেট নগরীর ২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও দাড়িয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. রমজান আহমদের স্ত্রী বৃষ্টি আক্তার শিপাকে তার বোনজামাই একই এলাকার মেঘনা বি-৭৩ বাসার বাসিন্দা নুরুল ইসলাম শুক্কুর ও দুই ভাগ্নি মিলে মারধর করেছেন।

এ ঘটনায় আজ সোমবার কোতোয়ালী মডেল থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, গতকাল রবিবার বিকেলে বোনজামাই নুরুল ইসলাম শুক্কুর নিজ বাসায় শিপাকে ডেকে নেন। তার নামে অপপ্রচার করছেন বলে অভিযোগ তুলে তাকে মারধর শুরু করেন। তার দুই মেয়েও মারধরে অংশ নেন। পরে আশপাশের বাসার লোকজন শিপাকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার মাথায় জিআই পাইপের আঘাতসহ সারা শরীরে মারধরের জখম রয়েছে বলে দাবি করেছেন শিপা।

শিপা বলেন, তার বাবা মারা যাওয়ার আগে ভাইয়েরা দেশের বাইরে থাকায় সম্পত্তির দলিলসহ যাবতীয় বিষয় বড় বোনজামাই শুক্কুরকে বুঝিয়ে ভাগভাটোয়ারার কথা বলে যান। কিন্তু আজ পর্যন্ত তিনি সে দায়িত্ব পালন না করে প্রতারণা করে আসছেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময় তার স্বামীর কাছ থেকে টাকা ধার নেন। এখন নিজেদের টাকার প্রয়োজন দেখা দেয়ায় তাকে টাকা দিতে বললে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে অপপ্রচারের অভিযোগ তুলে মারধর করেন। তার স্বামীকেও ছুরি দেখিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বোনজামাই শুক্কুর তার বিয়ের আগে থেকে তাকে নানাভাবে হয়রানি, অশালীন ব্যবহার ও মারধর করে আসছেন। বিয়ের পরও তিনি একাধিকবার তাকে মারধর ও গালাগালি করেছেন। কিন্তু বোনের দিকে চেয়ে কোনো সময় তিনি অভিযোগ করেননি। এখন পরিবারের নিরাপত্তার কথা ভেবে তিনি থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ও কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই আতিকুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তে সত্যতা পাওয়া গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •