• ডিসেম্বর ২, ২০২০
  • জাতীয়
  • 79
ফাইজারের ভ্যাকসিন অনুমোদন পেল যুক্তরাজ্যে

নিউজ ডেস্কঃ টিকা আবিষ্কারের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে যেখানে দশকের বেশি সময় লেগে যায়, সেখানে মাত্র ১০ মাসে করোনাভাইরাসের টিকার আবিষ্কারের প্রক্রিয়া শেষ করলো মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক।

তাদের দাবি, ১০ মাসে তৈরি করা করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন যুক্তরাজ্যে জরুরি ব্যবহারের জন্য বুধবার অনুমোদন পেয়েছে। বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে যুক্তরাজ্যের এ অনুমোদন করোনাভাইরাস মহামারি প্রতিরোধে বড় ধরনের অগ্রগতি।

যুক্তরাজ্যের মেডিসিনস অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি এজেন্সি (এমএইচআরএ) বলছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ৯৫% সক্ষম এই টিকাটি এখন ব্যবহারের জন্য নিরাপদ।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষজনের ওপর টিকার প্রয়োগ শুরু হবে।

এর মধ্যেই চার কোটি টিকার জন্য চাহিদা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, যা দিয়ে দুই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া যাবে। জনপ্রতি দুইটি করে ডোজ দেওয়া হবে। খুব তাড়াতাড়ি এক কোটি টিকার ডোজ পাওয়া যাবে।

টিকা আবিষ্কারের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে যেখানে দশকের বেশি সময় লেগে যায়, সেখানে মাত্র ১০ মাসে এই টিকার আবিষ্কারের প্রক্রিয়া শেষ করা হল।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নও পিছিয়ে নেই। ফাইজারের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মর্ডানাও তৈরি করেছে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন।

টিকা অনুমোদনের পর ফাইজারের সিইও আলবার্ট যুক্তরাজ্যের এই সিদ্ধান্তকে “ঐতিহাসিক মুহূর্ত” হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “বিশ্বব্যাপী উচ্চ মান সম্পন্ন এই ভ্যাকসিন জরুরিভাবে, নিরাপত্তার সাথে সরবরাহের লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।”

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •