• ডিসেম্বর ১০, ২০২০
  • জাতীয়
  • 81
আগামী মাসেই বাংলাদেশে আসবে করোনার টিকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ আগামী মাসের প্রথম ভাগে দেশে করোনার টিকা আসবে। ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদন করা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা আনবে সরকার। এই টিকা আনার জন্য আগেই চুক্তি করা আছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিসিপিএস ভবনে হাম-রুবেলার টিকা কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাহিদ মালেক করোনার টিকা নিয়ে এসব কথা বলেন। আগামী শনিবার থেকে দেশব্যাপী এই কর্মসূচি শুরু হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসের প্রথম দিকেই ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আমদানি করা হবে। এই টিকা আনার জন্য অনেক আগেই চুক্তি করেছে সরকার। তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশেরই চুক্তি না থাকায় টিকা নিতে বিলম্ব হবে। কিন্তু আমাদের দেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের ফলে এবং দ্রুত অর্থনৈতিক জোগান দেওয়ায় বিশ্বের অনেক দেশের আগেই টিকা চলে আসছে বাংলাদেশে।’

যুক্তরাজ্য ও রাশিয়াতে সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। খুব শিগগির যুক্তরাষ্ট্রেও টিকা দেওয়া শুরু হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশের মানুষেরও টিকার ব্যাপারে ব্যাপক আগ্রহ আছে। ভারত থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আনার ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, সিরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মার মধ্যে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হয়েছে। সরকার এই টিকা কিনবে। তবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যবহারের জন্য এখনো নিয়ন্ত্রণকারী কোনো প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন পায়নি। সরকার ভর্তুকিমূল্যে করোনার টিকা বণ্টনের বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্স থেকেও টিকা সংগ্রহ করবে।

গতকালের অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বাংলাদেশকে কিছু টিকা দেবে। সেগুলো সময়মতো বাংলাদেশ হাতে পেয়ে যাবে। আশা করা হচ্ছে, এই টিকা থেকে দেশের প্রায় ২৭ ভাগ মানুষ ক্রমান্বয়ে টিকা পাবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •