• ডিসেম্বর ২৪, ২০২০
  • শীর্ষ খবর
  • 73
যুক্তরাজ্য থেকে সিলেট আসা ১৬৫ জনই করোনা নেগেটিভ

নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাসের নতুন ধরণ ছড়ানো নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে লন্ডন থেকে সরাসরি ২০২ জন যাত্রী নিয়ে সিলেট আসে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট।

বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করা এই ফ্লাইটের ২০২ যাত্রীর মধ্যে ১৬৫ জনই সিলেটের।

করোনার প্রকোপের মধ্যে এতোসংখ্যক যাত্রী একসাথে সিলেটে আসায় আতঙ্ক দেখা দেয়। নড়েচড়ে বসে স্বাস্থ্যবিভাগও। তবে বৃহস্পতিবার সিলেটে আসা সকল যাত্রীরই করোনা নেগেটিভ সনদ রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

এদের মধ্যে ৬ জন যাত্রীকে নিয়ে বিমানবন্দের স্বাস্থ্য টিমের সন্দেহ তৈরি হয়। তবে পরবর্তীতে তারাও নেগেটিভ সনদ প্রদর্শনে সক্ষম হয়েছেন।

ওসমানী বিমানবন্দরে আসা বিদেশযাত্রীদের পরীক্ষার জন্য গঠিত মেডিকেল টিমের সমন্বয়ের দায়িত্বে আছেন সিলেট সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সিরাজুম মুনির।

তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য থেকে আসা যাত্রীদের আমাদের টিম পরীক্ষা করেছে। তাদের সকলেই যুক্তরাজ্য থেকে করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে এসেছেন। ১৬৫ যাত্রীর মধ্যে ৬ জনের মোবাইল ফোন চার্জ না থাকায় প্রথমে নেগেটিভ সনদ দেখাতে পারেননি। তাদেরকে আমরা আলাদা করে রেখেছিলাম। পরবর্তীতে তারাও সনদ দেখাতে সক্ষম হন। এরপর তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে সব যাত্রীকেই ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক মো.হাফিজ আহমেদ জানান, লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশ বিমানের বিজি ২০২ ফ্লাইট বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ১০ মিনিটে ওসমানীতে অবতরণ করে। এই ফ্লাইটে আসা ২০২ যাত্রীর মধ্যে ১৬৫ জনই সিলেটের, বাকী ৩৭ যাত্রীকে নিয়ে ১০টা ১০ মিনিটে ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ওসমানী ছাড়ে উড়োজাহাজটি।

হাফিজ আহমদ বলেন, করোনা নেগেটিভ সনদ ছাড়া এখন কাউকেই বিমানে উঠতে দেওয়া হয় না। আবার দেশে আসার পরও মেডিকেল টিম সব যাত্রীদের করোনা সনদ পরীক্ষা করে। ফলে করোনা নেগেটিভ সনদ ছাড়া কারোরই দেশে আসার সুযোগ নেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •