• ডিসেম্বর ২৪, ২০২০
  • শীর্ষ খবর
  • 97
সুনামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সেজে ভাতা উত্তোলন, যুবক গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জে জালিয়াতির মাধ্যমে বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান পরিচয় দিয়ে ভাতা উত্তোলন করে আত্মসাতের ঘটনায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই যুবকের নাম সন্তোষ পাল (২০)। তিনি জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের গুরেশপুর গ্রামের সাধন পালের ছেলে।

জেলা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) দায়িত্বরত উপপরিদর্শক (এসআই) সুমন মালাকার জানান, বুধবার সন্ধ্যায় জেলার ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট থেকে সন্তোষ পালকে গ্রেপ্তার করেন তাঁরা। সন্তোষ পালের বিরুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সেজে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় একটি মামলা আছে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার সলফ গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা গেদা আলীর ছেলে ইসমাইল আলী বাদী হয়ে চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি এই মামলা করেন। মামলাটি সিআইডি তদন্ত করছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়নের কাবিলাখাই গ্রামের পরিমল পাল মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। দেশ স্বাধীনের কয়েক বছর পর তিনি ও তাঁর দুই ভাই পরিবার নিয়ে ভারতে চলে যান। বাংলাদেশে পরিমল পালের কেউ নেই। কিন্তু দোয়ারাবাজার উপজেলার গুরেশপুরের সাধন পালের ছেলে সন্তোষ পাল বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিমল পালের ছেলে সেজে ২ লাখ ১০ হাজার টাকা ভাতা উত্তোলন করেছেন। সন্তোষ পালের মা রেনু বালা পাল জীবিত থাকলেও উত্তরাধিকার সনদে মাকে তিনি মৃত দেখিয়ে অন্যের ভাতা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেন। এ ঘটনায় কাবিলাখাই গ্রামের পাশের সলফ গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা গেদা আলীর ছেলে ইসমাইল আলী সন্তোষ পালের বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় মামলা করেন। এই মামলায় সন্তোষ পালকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির উপপরিদর্শক (এসআই) সুমন মালাকার বলেন, তাঁরা তদন্ত করে জেনেছেন সন্তোষ পাল মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নন। তাঁর বাড়ি দক্ষিণ সুনামগঞ্জেও নয়। তিনি দোয়ারাবাজারের গুরেশপুর গ্রামের সাধন পালের ছেলে। অথচ তিনি দক্ষিণ সুনামগঞ্জের কাবিলাখাই গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিমল পালের ছেলে সেজে ভাতা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •