• জানুয়ারি ১০, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 105
বানিয়াচংয়ে কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

বানিয়াচং প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় পুর্বের শত্রুতার জেরে কলেজছাত্র খুন হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ছাত্রের নাম তানভীর মিয়া (২০)। তিনি বানিয়াচংয়ের শচীন্দ্র ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। তানভীর বড়ইউড়ি গ্রামের মন্তাজ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বানিয়াচংয়ের বড়ইউড়ি গ্রামের মন্তাজ মিয়া ও মোহাম্মদ আলীর মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে ২০১৮ সালে মে মাসে মোহাম্মদ আলীর বাবা আমীর আলী হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। এ ঘটনায় মন্তাজ মিয়াসহ বেশ কয়েকজন হত্যা মামলার আসামি। ওই ঘটনার পর থেকে মন্তাজ মিয়া পলাতক ছিলেন। গত শুক্রবার হঠাৎ মন্তাজ মিয়া গ্রামে এলে এ নিয়ে মোহাম্মদ আলী ও তাঁর স্বজনদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে গতকাল দুপুরে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। এ সময় মোহাম্মদ আলী আহত হয়েছেন। এর জেরে রাত ১০টার দিকে মন্তাজ মিয়ার ছেলে তানভীর মিয়াকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষ। গুরুতর আহত অবস্থায় তানভীরকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

এ ঘটনার খবর পেয়ে রাতের বানিয়াচং সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মো. সেলিমসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে নিহত তানভীরের লাশটি উদ্ধার করে বানিয়াচং থানায় নেওয়া হয়। আজ রোববার সকালে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যার জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে লাশটির ময়নাতদন্ত হয়েছে।

বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরান হোসেন বলেন, বড়ইউড়ি গ্রামে দুপক্ষের মধ্যে নানা বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর আগেও আমীর আলী নামের এক ব্যক্তি হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। গতকাল রাতে প্রতিপক্ষের হামলায় কলেজছাত্র তানভীর নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। তবে মামলার প্রক্রিয়াধীন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •