• জানুয়ারি ১৭, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 51
গোয়াইনঘাটে মরিচখেতে বসে ছিল মেছো বাঘের ছানা

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ মেছো বাঘের ছানাটি বসা ছিল মরিচখেতের মাঝখানে। ‘বাঘ, বাঘ…’ বলে সেটিকে ধাওয়া দেন গ্রামের লোকজন। ধাওয়ার মুখে খেতের এক পাশে পাতা জালে ধরা পড়ে ছানাটি। এ সময় একজনকে কামড়ও দেয় সেটি। লোকজন তখন ছানাটিকে মারতে উদ্যত হন। খবর পেয়ে ইউএনও লোক পাঠিয়ে মেছো বাঘটিকে অক্ষত রাখার নির্দেশ দেন।

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার কাকুনাইখাই খলা গ্রামে গত শনিবার সন্ধ্যায় ঘটে এ ঘটনা। আজ রোববার ছানাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ে হাজির করা হয়। সেটি ছেড়ে দেওয়ার জন্য বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

হয়তো পথ ভুলে বা দলছুট হয়ে মেছো বাঘের ছানাটি সেখানে গিয়েছিল। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে টিলাগড় ইকোপার্কে এটি ছেড়ে দেওয়া হবে।
আরিফুল ইসলাম, বন বিভাগের সারী রেঞ্জের কর্মকর্তা

খলা গ্রামের আবদুল খালিক জানান, শনিবার সন্ধ্যাবেলা মেছো বাঘাটি মরিচখেতের মধ্যে দেখতে পান কয়েকজন। ধাওয়া করে ধরার সময় সেটি একজনকে কামড় দেয়। এ কারণে লোকজন ছানাটিকে মারতে উদ্যত হন।

ইউএনও তাহমিলুর রহমান বলেন, ‘মেছো বাঘের ছানাটি মারার প্রস্তুতি নেওয়া হলে আমি লোক পাঠাই। গ্রামের লোকজনকে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইন বিষয়ে জানিয়ে ছানাটি অক্ষত রাখতে বলি। কামড় খাওয়া লোকটির চিকিৎসায় প্রশাসনের সহায়তা করার কথাও বলেছি। গ্রামের লোকজন আমার কথা শুনে আজ সকালে মেছো বাঘটি কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। সেটি ছেড়ে দেওয়ার জন্য বন বিভাগের কাছে দেওয়া হয়েছে।’

বন বিভাগের সারী রেঞ্জের কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম বলেন, হয়তো পথ ভুলে বা দলছুট হয়ে মেছো বাঘের ছানাটি সেখানে গিয়েছিল। গ্রামবাসী অক্ষত অবস্থায় এটি হস্তান্তর করেছেন। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে টিলাগড় ইকোপার্কে এটি ছেড়ে দেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •