• মার্চ ৮, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 13
নারী-পুরুষ কাউকেই পেছনে ফেলে রাখা যাবে না: মন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, নারী-পুরুষ কাউকেই পেছনে ফেলে রাখা যাবে না। সবাইকে একসঙ্গে হাঁটতে হবে। নারীরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করছেন। এদের মধ্যে দুর্ঘটনাও ঘটছে। বিদেশ থেকে দু-একজন ফেরত এলেও বাকিরা ঠিকই উপার্জন করে দেশে টাকা পাঠাচ্ছেন।

সোমবার (৮ মার্চ) সিলেটের শাহী ঈদগাহ খেলার মাঠে নারী উদ্যোক্তাদের সম্মেলন ও পণ্য প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আন্তর্জাতিক নারী দিবস ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, দালালের মাধ্যমে নারীরা যেন বিদেশে না যান। আমরা চাই না নারীরা দালালের মাধ্যমে বিদেশে গিয়ে কষ্ট করুক। আমাদের দেশের সব জায়গাতেই কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) রয়েছে। যেখানে প্রশিক্ষণ নিয়ে নারীরা বিদেশ গিয়ে দক্ষতার সঙ্গে কোনো সমস্যা ছাড়া ভালো অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। প্রতিটি উপজেলাতেও এই টিটিসির কার্যক্রম শুরুর বিষয়েও কাজ চলছে।

সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি স্বর্ণলতা রায়ের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ বেতারের ঘোষক জান্নাতুল নাজনীন আশার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সিলেট-সুনামগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামিমা আক্তার খানম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রির সভাপতি আফজাল রশিদ চৌধুরী, বরিশাল উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি বিলকিস আহমেদ লিলি ও শেরপুর উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মনিজা মাসুদ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে তিনটি ক্যাটাগরিতে প্রধান উদ্যোক্তা মিনারা বেগম, নির্ভীক উদ্যোক্তা ফারমিস আক্তার ও নবীন উদ্যোক্তা নুজাহাত ইসলাম রিয়াকে বিশেষ সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

সিলেট নগরীর শাহী ঈদাগাহ খেলার মাঠে আগামী দুই মাস এই পণ্য প্রদর্শনী চলবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •