• মার্চ ৩১, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 62
সিলেটে সংক্রমণ বাড়লেও টিকা নেওয়ায় ভাটা!

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ার পাশাপাশি মৃতের সংখ্যাও বাড়ছে। তবে আক্রান্ত বিবেচনায় করোনা প্রতিরোধী টিকা নেওয়ায় মানুষের আগ্রহে ভাটা দেখা দিয়েছে।

হঠাৎ করে করোনার প্রভাব বেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে মানুষজনের অসচেতনতাকে দায়ী করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকরা।

সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, এখন সময় এসেছে শাস্তি দিয়ে বোঝানোর! যারা স্বাস্থ্য বিধি মানছেন না তাদের সরাসরি জেল-জরিমানা করা উচিত। এ জন্য প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে।

তিনি বলেন, আগে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির দ্বারা ২/৪ জন আক্রান্ত হতেন। নতুন ধরনের করোনায় একজনের দ্বারা কমপক্ষে ৭০ জন আক্রান্ত হচ্ছেন। যে কারণে আক্রান্তের হার দ্রুত বাড়ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে আরও ৬১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ২৭ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই জনের। এর মধ্যে একজন সিলেটের, অন্যজন মৌলভীবাজারের বাসিন্দা।

গত ছয় মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) ১০১ জন। আগের দিন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯৯ জন শনাক্ত হয়।

এ যাবত সিলেট বিভাগে ১৭ হাজার ৩৯১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ১৬ হাজার ১২৫ জন। মারা গেছেন মোট ২৮৫ জন।

বুধবার (৩১ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. সুলতানা রাজিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৬১ জনের মধ্যে ৩৮ জনই সিলেট জেলার, সুনামগঞ্জের জেলায় ১২ জন এবং মৌলভীবাজারের ১১ জন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সিলেটে করোনা টিকাদান শুরু হয়। মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) পর্যন্ত ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৫৩ জন রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিয়েছেন ২ লাখ ৭৬ হাজার ১৩০ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় এক লাখ ৩৭ হাজার ৩৬৯ জন রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিয়েছেন এক লাখ ৬৮ হাজার ৭৪ জন। সুনামগঞ্জে ৬৪ হাজার ৪৯৮ জন রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিয়েছেন ৫৫ হাজার ২৪৯ জন। হবিগঞ্জে ৬৬ হাজার ৬৫২ জন রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নেন ৫১ হাজার ৭৬০ জন এবং মৌলভীবাজারে ৭৫ হাজার ৫৩৪ জন রেজিস্ট্রেশন করে ৬২ হাজার ২৪৭ জন টিকা নিয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালকের দায়িত্বে থাকা ডা. আনিসুর রহমান বলেন, প্রথম ধাপে বিভাগে ৪ লাখ ৪৪ হাজার ডোজ করোনার টিকা আসে। এর মধ্যে সিলেট জেলায় আসে ২ লাখ ২৮ হাজার ডোজ। প্রথম পক্ষকালে ডোজের বিপরীতে সোয়া ২ লাখ লোকজনকে টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও এখন পর্যন্ত প্রায় পৌনে ৩ লাখ লোক টিকা নিয়েছেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, করোনা পরিস্থিতি সিলেটে ভয়াবহ আকার ধারণ করলেও টিকা নেওয়ায় মানুষের আগ্রহে ভাটা সৃষ্টি হয়েছে। বিভাগে প্রায় এক কোটি জনসংখ্যার বিপরীতে পৌনে ৩ লাখ লোক টিকা নিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •