• জুন ১০, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 61
এখনই খুলছে না বন্ধ থাকা সিলেটের ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেটগুলো

নিউজ ডেস্কঃ বারবার ভূমিকম্পের কারণে ক্ষয়ক্ষতি কমাতে সিলেটে ১০ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিলো ঝুঁকিপূর্ণ ৭টি ভবন। নির্ধারিত ১০দিন শেষ হচ্ছে আজ। তবে বন্ধ থাকা ভবনগুলো এখনই খোলা যাবে না বলে জানিয়েছে সিটি করপোরেশন।

সিলেটের ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোতে আজ বৃহস্পতিবার থেকে জরিপ শুরু করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) বিশেষজ্ঞ দল। জরিপ শেষে তাদের প্রতিবেদন পাওয়ার পর বন্ধ থাকা ভবনগুলোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) কর্মকর্তারা।

শাবিপ্রবির সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ (সিইই) ও পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষকরা বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোতে জরিপ শুরু করেন। তারা এই ভবনগুলো করে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ভাগ করে এসব ভবন কতটুকু ঝুঁকিপূর্ণ- এ নিয়ে সিসিককে পরামর্শ দেবেন। তাদের প্রতিবেদন পাওয়ার পর মার্কেট খোলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে সিসিক।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান বলেন, বিশেষজ্ঞ দলের সদস্যরা বৃহস্পতিবার সকালে ও বিকেলে ঝুঁকিপূর্ণ কয়েকটি মার্কেট পরিদর্শন করেন। তাদের দেয়া প্রতিবেদন পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেবে সিসিক। শাবির বিশেষজ্ঞ টিম পরিদর্শনের পর তাদের নির্দেশনা পেলে খুলে দেয়া হবে ঝূঁকিপূর্ণ হিসেবে বন্ধ থাকা মার্কেট বা ভবন।

জানা যায়, গত ২৯ মে কয়েকদফা ভূমিকম্প পরবর্তী সম্ভাব্য ঝুঁকি এড়াতে নগরের ৬ টি মার্কেট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। গত সোমবার (৩১ মে) সকাল থেকে বুধবার ( ৯ জুন) পর্যন্ত এ সকল মার্কেট বন্ধ ঘোষণা করা হয়। মার্কেটগুলো হলো- সিলেট নগরীর মিতালি ম্যানশন, সিটি সুপার মার্কেট, মধুবন সুপার মার্কেট, রাজা ম্যানশন, সমবায় ভবন ও সুরমা মার্কেট। এই ৬টি ভবন (মার্কেট) আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকায় ছিল বলে জানিয়েছে সিটি কর্পোরেশন। এছাড়া অতিঝুঁকিতে থাকা জিন্দাবাজারের একটি দোকান স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি নগরীর পনিটুলা এলাকায় সামান্য হেলে থাকা ভবনের বাসিন্দাদেরও ১০ দিনের জন্য অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •