• জুন ১৯, ২০২১
  • লিড নিউস
  • 147
গোয়াইনঘাটে ৩ খুনে গৃহকর্তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের গোয়াইনঘাটে মা ও দুই সন্তান খুনের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় গৃহকর্তা হিফজুর রহমানকে (৪০) গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ।

আজ শনিবার বেলা একটার দিকে সিলেটের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য দেন পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন।

এসপি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা ঘটনার কয়েকটি বিষয় নিয়ে তদন্ত করেছি। এর মধ্যে হিফজুরের মামার সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ এবং স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ। আমরা তদন্তে এখন পর্যন্ত যে তথ্য-প্রমাণ পেয়েছি, সেগুলো হিফজুরের বিপক্ষে যাচ্ছে। তিনি স্ত্রী ও দুই সন্তানকে খুন করেছেন বলে তদন্তে উঠে আসছে। হিফজুর আহত অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখানে পুলিশ প্রহরায় তাঁকে রাখা হয়েছে। আমরা চিকিৎসকদের সঙ্গে বিস্তারিত আলাপ করেছি। তাঁকে আজই গ্রেপ্তার দেখানো হচ্ছে। হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর আগামীকাল রোববার তাঁকে আদালতে পাঠানো হবে। পরে তাঁকে রিমান্ডে নিতে আবেদন করা হবে।’

গত বুধবার সকাল ৭টার দিকে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের বিন্নাকান্দি গ্রামে হিফজুর রহমানের বাড়িতে তাঁর স্ত্রী আমিনা বেগম (৩০), ছেলে মিজানুর রহমান (১২) ও ছোট মেয়ে তানিশা বেগমের (৩) লাশ পাওয়া যায়। হিফজুর রহমানকে সে সময় আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই রাতেই গোয়াইনঘাট থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা করেন নিহত আলিমা বেগমের বাবা আইয়ূব আলী।

সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘হিফজুর রহমানের কাছে আমরা হাসপাতালে সেদিনের ঘটনার সম্পর্কে জানতে চেয়েছি। এতে তিনি বলেছেন, তিনি ওই দিন রাতে স্বপ্নে মাছ দেখেছেন। পরে সেগুলো তিনি কেটেছেন। তাঁর কথাবর্তা অসংলগ্ন। তাঁর মানসিক সমস্যা রয়েছে কি না, সে জন্য আমরা ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •