• সেপ্টেম্বর ৩, ২০২১
  • জাতীয়
  • 119
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭০ জনের মৃত্যু

নিউজ ডেস্কঃ দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ৪৩২ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ১৬৭ জন। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ১০ হাজার ২৮৩ জন।
শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাছিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৬৯৭ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৪ লাখ ৪২ হাজার ৫৮২ জন।

সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭৯৬ টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৩৯টি, জিন এক্সপার্ট ৫৪টি, র্যাপিড অ্যান্টিজেন ৬০৩টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২৯ হাজার ৪৭৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৯ হাজার ৪৩৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯০ লাখ ২১ হাজার ১০২টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১০ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৭৪ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৫ দশমিক ৫২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৭০ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৪ জন ও ৩৬ জন নারী। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৫ জন, রাজশাহী বিভাগে চার জন, খুলনা বিভাগে ১২ জন, বরিশাল বিভাগে চারজন, সিলেট বিভাগে আটজন, রংপুর বিভাগে তিনজন। সরকারি হাসপাতালে ২৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ১০ জন এবং বাড়িতে তিনজন মারা গেছেন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৬ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ২১ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে চারজন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৮১০ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন এক হাজার ৭৯৭ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৬৮ হাজার ৯১ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ১২ হাজার ১৫৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৫৫ হাজার ৯৩৪ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •