• সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 57
সিলেটে চার মাস পর সর্বনিম্ন করোনা শনাক্তের রেকর্ড

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট বিভাগে প্রায় চার মাস পর করোনা শনাক্তের হার সর্বনিম্ন রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে চলতি বছরের জুন মাসের শুরুতে করোনা শনাক্তের হার ৪-৬ শতাংশ থেকে ১৩ শতাংশের ওপরে উঠতে থাকে। জুলাই থেকে আগস্ট মাসে যা ৪০ শতাংশ পর্যন্ত পৌঁছায়। আজ শুক্রবার শনাক্ত ৩ দশমিক ২৩ শতাংশে নেমে এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় (গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে আজ শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) বিভাগে ৯৬১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩ দশমিক ২৩।

এর আগে গতকাল ৪ দশমিক ১০ শতাংশ সর্বনিম্ন করোনা শনাক্ত করা হয়েছিল। এর আগে চলতি মাসে সর্বশেষ ১৩ সেপ্টেম্বর বিভাগে ৬ দশমিক ৮৮ শতাংশ করোনা শনাক্ত করা হয়েছিল। বিভাগে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে ৫৪ হাজার ৪৪২ জন। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন একজন। মৃত ব্যক্তি সিলেটের বাসিন্দা। এ নিয়ে বিভাগে ১ হাজার ১৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ দুপুরে সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সিলেট বিভাগে করোনার সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ছিল গত জুন মাসের শেষ দিক থেকে। সে সময় থেকে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় ৩০ শতাংশের ওপরে শনাক্ত করা হতো। জুলাই ও আগস্ট মাসে সেটি ৪০ শতাংশে পৌঁছায়। চলতি মাসের শুরু থেকে করোনা শনাক্তের হার নিম্নমুখী হতে থাকে। চলতি মাস থেকে বিভাগে আক্রান্তের হার ৪ থেকে ৬ শতাংশে উঠানামা করছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সিলেটের ২৭, হবিগঞ্জের ২ ও মৌলভীবাজারে ২ জন রয়েছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪ হাজার ৪৪২। এর মধ্যে সিলেটের ৩৩ হাজার ৫২৫, সুনামগঞ্জের ৬ হাজার ২২৯, হবিগঞ্জের ৬ হাজার ৬১৬ ও মৌলভীবাজারের ৮ হাজার ৭২ জন বাসিন্দা রয়েছেন।
শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিভাগে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বিভাগে মারা গেছেন ১ হাজার ১৫২ জন। এর মধ্যে সিলেটের ৯৬১, সুনামগঞ্জের ৭২, হবিগঞ্জের ৪৭ ও মৌলভীবাজারের ৭২ জন বাসিন্দা মারা গেছেন।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে নতুন করে ২৮ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনা থেকে সুস্থ হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৭ হাজার ৮৭৬।
সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক হিমাংশু লাল রায় বলেন, সিলেট বিভাগে করোনায় আক্রান্তের হার নিম্নমুখী হচ্ছে। তবে আক্রান্তের হার ১ থেকে ২ শতাংশ উঠানামা করছে। আজ শনাক্তের হার ৩ শতাংশে নেমে এসেছে। বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৮৬ জনের মধ্যে ৭৭ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন সিলেট জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে। এ ছাড়া সুনামগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন সাতজন ও মৌলভীবাজারে দুজন। তিনি করোনা সংক্রমণ রোধে সবাইকে সচেতন থাকতে এবং সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আহ্বান জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •