• ডিসেম্বর ১২, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 64
সিলেটে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাতনি সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগে সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানসহ দুজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা নেওয়ার জন্য আবেদন করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলাটি নেওয়ার জন্য আবেদন করা হয়।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সিলেটের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. তানভীর আখতার খান (৪০) সাইবার ট্রাইব্যুনালে ওই আবেদন করেন। আবেদনে অপর যে ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, তাঁর নাম মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদ। তিনি যে ভার্চ্যুয়াল টক শোতে মুরাদ জাইমা সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছিলেন সেই টক শোর সঞ্চালক ছিলেন।

তানভীরের আইনজীবী আহমদ ওবায়দুর রহমান বলেন, ১৫ ডিসেম্বর আদালত এ বিষয়ে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন। এ সময় আদালতে সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ টি এম ফয়েজ, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হকসহ ৫০ থেকে ৬০ জন আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

মামলা নেওয়ার আবেদনে বলা হয়েছে, বেগম খালেদা জিয়ার নাতনি ও তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমান লন্ডনে আইন পেশায় নিয়োজিত। ১ ডিসেম্বর মুরাদ হাসান ও উপস্থাপক মহিউদ্দিন হেলাল ভার্চ্যুয়ালি একটি টক শো করেন। সেখানে জাইমা রহমান সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ, অশালীন, নারী বিদ্বেষী ও মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন মুরাদ হাসান। অনুষ্ঠানের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উদ্দেশ্যমূলকভাবে প্রচার করা হয়। জিয়া পরিবার ও তাঁর নাতনি জাইমা রহমানকে অপমান-অপদস্থ ও হেয় প্রতিপন্ন করতেই ভিডিওটি আসামিরা ছড়িয়ে দিয়েছেন।

নারীর প্রতি বিদ্বেষপূর্ণ, অশালীন ও অবমাননাকর বক্তব্যের জেরে সম্প্রতি তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ হারান সরকারদলীয় সাংসদ মুরাদ হাসান।

সম্প্রতি জাইমাকে নিয়ে মুরাদ হাসানের অশ্লীল মন্তব্য ঘিরে কয়েক দিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা হচ্ছিল। এর মধ্যেই ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে মুরাদ হাসানের ফোনালাপের একটি অডিও ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে একজন চিত্রনায়িকার সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি নোংরা ও অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করেন। একই সঙ্গে তাঁকে হুমকিও দেন। এ নিয়ে বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মুরাদ হাসান। পদ হারানোর পর মুরাদ হাসান কানাডার উদ্দেশে দেশ ছাড়েন। মুরাদ হাসান জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ি উপজেলা) আসনের সাংসদ। তাঁর বাবা প্রয়াত মতিউর রহমান তালুকদার জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •