• ডিসেম্বর ১৫, ২০২১
  • শীর্ষ খবর
  • 54
হবিগঞ্জে আ.লীগের ৩১ বিদ্রোহী প্রার্থীকে বহিষ্কার

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ দলীয় সিদ্ধান্ত না মেনে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হওয়ায় হবিগঞ্জের লাখাই ও বানিয়াচং উপজেলার ৩১ নেতা–কর্মীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আজ বুধবার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বিষয়টি জানানো হয়।

লাখাই উপজেলায় ১৪ জন নেতা–কর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃত নেতা–কর্মীরা হলেন মুড়াকরি ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শরীফ উদ্দিন তালুকদার, জেলা যুবলীগ কর্মী আবুল কাশেম মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুল হাসান, যুবলীগ কর্মী মো. জাহিদুল ইসলাম, মুড়িয়াউক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক মিয়া তালুকদার, উপজেলা যুবলীগের সদস্য মুখলেছুর রহমান ও মো. নোমান মিয়া, বামৈ ইউনিয়নে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি এনামুল হক মামুন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি মোর্শেদ কামাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য খসরু নোমান।

এ ছাড়া লাখাইয়ের করাব ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল হাই কামাল, বুল্লা ইউনিয়নের উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য মো. এয়ার হোসেন তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য জাহারুল ইসলাম ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য শেখ মুর্শেদ কামালকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বানিয়াচং উপজেলায় বহিষ্কৃত প্রার্থীরা হলেন দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আজিজুর রহমান, কাগাপাশা ইউনিয়নে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. এরশাদ আলী, বড়ইউড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. এয়াওর মিয়া, খাগাউড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল লতিফ, হবিগঞ্জ পৌর যুবলীগ নেতা মো. কাউছার চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী, জেলা কৃষক লীগের কৃষি ও ঋণবিষয়ক সম্পাদক মো. তাহির মিয়া, বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এনাম খান চৌধুরী, একই উপজেলা আওয়ামী লীগের সমাজকল্যাণ সম্পাদক সাদিকুর রহমান।

বানিয়াচং উপজেলায় সুজাতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাজার কামরান, একই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ ফরিদ ও রবিন চৌধুরী, জেলা কৃষক লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক মো. হেলাল মিয়া, হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক আবদুল হেকিম ফুল মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রফিকুল ইসলাম পাশা, পৈলারকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জয়নাল আবেদীন তালুকদার ও একই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মো. শাহজাহান মিয়াকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

জেলায় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের ওই ৩১ নেতা–কর্মী চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে নিজ নিজ ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় তাঁদের কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তে বহিষ্কার করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর চৌধুরী এ বহিষ্কারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বহিষ্কৃত নেতা–কর্মীরা আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু মনোনয়ন না পেয়ে তাঁরা ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হন। এটা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধ। এ কারণে তাঁদের বহিষ্কার করা হয়েছে। এ ৩০ জনের নাম কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •