• ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 294
নবীগঞ্জে স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে শ্বশুরকে ফোন, টাকা না পেয়ে হত্যা!

নিউজ ডেস্কঃ অটোরিকশা কেনার জন্য যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে জাকারিয়ার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় নিহত রাজনা বেগমের ভাই সুফি মিয়া বাদী হয়ে নবীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান থেকে জাকারিয়াকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৯) সদস্যরা।

শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাকারিয়াকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব-৯-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ আবদুর রহমান বলেন, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার রসুলগঞ্জ বাজারে সফিক মিয়ার বাসায় স্ত্রীকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন জাকারিয়া। গত সোমবার রাতে বাসা থেকে রাজনা বেগমের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে জাকারিয়া পলাতক ছিলেন।

র‍্যারের এই কর্মকর্তা বলেন, অটোরিকশা চালক জাকারিয়ার সঙ্গে গত বছর রাজনা বেগমের বিয়ে হয়। এরপর নতুন অটোরিকশা কেনার জন্য যৌতুক চেয়ে রাজনাকে চাপ সৃষ্টি করেন। এরই জেরে গত সোমবার (৩১ জানুয়ারি) রাতে যৌতুকের টাকার জন্য রাজনার হাত-পা বেঁধে শ্বশুরবাড়ি ফোন দেন জাকারিয়া। শ্বশুরবাড়ি থেকে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ওড়না দিয়ে রাজনার মুখ চেপে বটি-দা দিয়ে তার গলা কেটে হত্যা করেন জাকারিয়া। স্ত্রীর মরদেহ ঘরে রেখে বাইরে থেকে তালাবদ্ধ করে পালিয়ে মুন্সীগঞ্জ চলে যান তিনি।

পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় জাকারিয়াকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। শুক্রবার বিকেলে জাকারিয়াকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করার কথা রয়েছে।