• ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২
  • মৌলভীবাজার
  • 359
মৌলভীবাজারের কুলাউড়া সড়কের কাজ বন্ধ করে দিলেন এলাকাবাসী

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় বিজয়া-কাপনাপাহাড় বাগান সড়কের মেরামতকাজ গতকাল শনিবার বন্ধ করে দিয়েছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় ব্যক্তিরা বলেন, মাত্র তিন দিন আগে সড়কের কাজ শুরু হয়। এরই মধ্যে কাজে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করা হচ্ছে। তাই তাঁরা কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তর সূত্র জানায়, কুলাউড়া উপজেলার বিজয়া থেকে জুড়ী উপজেলার কাপনাপাহাড় বাগান পর্যন্ত সড়কটির দৈর্ঘ্য ১৫ কিলোমিটার। সড়কটির বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দের সৃষ্টি হওয়ায় সম্প্রতি তা মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রায় ৪৫ লাখ টাকার ওই কাজ পেয়েছেন মৌলভীবাজার জেলা সদরের ঠিকাদার কামরুজ্জামান শ্যামল ও আকবর আলী। ১০ ফেব্রুয়ারি কাজ শুরু হয়। এক মাসের মধ্যে কাজটি শেষ হওয়ার কথা।

রঙ্গিরকুল এলাকার লোকজন বলেন, শুরু থেকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন গর্ত ভরাটে নিম্নমানের বিটুমিন ব্যবহার করছে। পাথরের সঙ্গে বিটুমিনের মিশ্রণ হচ্ছে না। ফলে যেখানে এসব মিশ্রণ ফেলা হচ্ছে, তা যানবাহন ও পায়ের ঘষায় উঠে পড়ছে। এ বিষয়ে গত শুক্রবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নিয়োজিত শ্রমিকদের কাছে আপত্তি জানানো হয়। কিন্তু তাঁরা তা উপেক্ষা করে কাজ চালিয়ে যান। এতে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হন। এ অবস্থায় গতকাল দুপুর ১২টার দিকে এলাকার লোকজন জড়ো হয়ে কাজ বন্ধ করে দেন। ট্রাকে করে নিয়ে আসা পাথর ও বিটুমিনের মিশ্রণ আর সড়কে না ফেলতে শ্রমিকদের বলা হয়।

এ সড়কের কাজ তদারকের দায়িত্ব সওজ অধিদপ্তরের কুলাউড়া কার্যালয়ের কার্য সহকারী আবদুর রউফের। তিনি বলেন, উন্নতমানের বিটুমিন ছাড়া সড়কের কাজ আর করতে দেওয়া হবে না বলে ঠিকাদারের লোকজনকে জানানো হয়েছে।

সড়কের কাজে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহারের অভিযোগের বিষয়ে কথা বলার জন্য ঠিকাদার কামরুজ্জামান শ্যামল ও আকবর আলীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাঁরা কেউ ফোন ধরেননি।

কুলাউড়া সড়ক বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী পার্থ সরকার মুঠোফোনে বলেন, বিজয়া-কাপনাপাহাড় বাগান সড়কের কাজ আপাতত বন্ধ রয়েছে। ঠিকাদারকে কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী তাঁরা কাজ করবেন।