• ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 321
সিলেট বোর্ডে পাসের হার ৯৪ দশমিক ৮০, জি‌পিএ-৫ প্রাপ্তিতে রেকর্ড

নিউজ ডেস্কঃ ‌সিলেট শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এবার উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) পরীক্ষায় পাসের হার ৯৪ দশমিক ৮০। শিক্ষা বোর্ড প্রতিষ্ঠার পর এবারের পাসের হার দ্বিতীয় স‌র্বোচ্চ। এর আগে গত বছর করোনার কারণে এইচএস‌সি পরীক্ষা অনু‌ষ্ঠিত না হওয়ায় শতভাগ পরীক্ষার্থী পাস করেছিলেন।

১৯৯৯ সালে সিলেট শিক্ষা বোর্ড প্রতিষ্ঠার পর সর্বোচ্চ জি‌পিএ-৫ প্রা‌প্তিতে এবার নতুন রেকর্ড হয়েছে। এবার বোর্ডের অধীনে ৪ হাজার ৭৩১ পরীক্ষার্থী জি‌পিএ-৫ পেয়েছেন। গত বছর জি‌পিএ-৫ প্রা‌প্তির সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ২৪২।

আজ রোববার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে সিলেট শিক্ষা বোর্ডের সভাকক্ষে এইচএস‌সি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন বোর্ডের স‌চিব কবীর আহমদ ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অরুণ চন্দ্র পাল।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবার সিলেট বোর্ডের অধীনে ৬৭ হাজার ৯৯৮ পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছেন ৬৩ হাজার ১৯৩ জন। পাসের হার ৯৪ দশ‌মিক ৮০। এবার পরীক্ষার্থীরা ঐচ্ছিক বিষয়ে পরীক্ষায় অংশ নেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, এবারের উচ্চমাধ্যমিক প‌রীক্ষায় ইংরে‌জি বিষয়ে পরীক্ষা না হওয়ায় পরীক্ষার্থীরা ভালো ফল করেছে। এ ছাড়া মান‌বিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ভালো ফল করায় পাসের হারে উন্ন‌তি হয়েছে। সিলেট বোর্ডের অধীনে ৮৫‌টি কেন্দ্রে এবার ২৯৯‌টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে শতভাগ পাস করেছে ৫৩‌টি প্রতিষ্ঠান।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় সারা দেশে জিপিএ–৫ পেয়েছেন ১ লাখ ৮৯ হাজার ১৬৯ জন। এর মধ্যে ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ–৫ পেয়েছেন ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫২২ জন। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন আলিম পরীক্ষায় জিপিএ–৫ পেয়েছেন ৪ হাজার ৮৭২ জন। আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন জিপিএ–৫ পেয়েছেন ৫ হাজার ৭৭৫ জন।

এই পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৯৫ দশমিক ২৬। এই পরীক্ষায় মোট অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ছিলেন ১৩ লাখ ৭১ হাজার ৬৮১ জন। এর মধ্যে পাস করেছেন ১৩ লাখ ৬ হাজার ৭১৮ জন।

আজ রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল হস্তান্তরের পর দুপুর সোয়া ১২টার দিকে গণভবন থেকে তিনি ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে এই ফলাফল ঘোষণা করেন। সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের এসব তথ্য তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।