• ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 375
সত্য ও ন্যায় বিজয়ী হয়েছে, মিথ্যা পরাজিত হয়েছে : শাবি ভিসি

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, সত্য ও ন্যায় বিজয়ী হয়েছে। সত্য টিকে আছে, মিথ্যা পরাজিত হয়েছে। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে ক্যাম্পাসের গোলচত্বরে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা শেষে তিনি শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন।

ভিসি বলেন, ‘সবার কাছে অনুরোধ, ভালো কাজ করলে তুলে ধরবেন। খারাপ করলেও তুলে ধরবেন। আপনাদের কাছ থেকে আমি কোনো ফেবার চাই না। অন্যায় করে থাকলেও তুলে ধরবেন। কিন্তু মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে পুরো জাতিকে বিভ্রান্তি করবেন না। আমি দেখেছি, বিভিন্ন জায়গা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়কে সহযোগিতা করেছেন, এসব অব্যাহত থাকলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাব।’

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন শুরুর মাসখানেক পর প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে কথা বলেন ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ‘একজন শিক্ষক, একজন ছাত্র কিংবা একজন ব্যক্তি যদি এসে ন্যায্য কথা বলেন, আমরা ওই কথাকে গুরুত্ব দিয়ে সমাধানের ব্যবস্থা করব। আমরা অন্যায়ের কাছে কখনো মাথা নত করিনি, ভবিষ্যতেও করব না। আমরা ন্যায় ও সত্যের পক্ষে থাকব। আজকে সত্য ও ন্যায় বিজয়ী হয়েছে। সত্য টিকে আছে, মিথ্যা পরাজিত হয়েছে।’
আরও পড়ুন

ভিসি আশা প্রকাশ করেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় আগামী তিন বছর পর পুরো বাংলাদেশের একটি রোল মডেল হবে। বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ দেখতে আসবে এই বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষা, গবেষণা ও অবকাঠামোর উন্নয়নে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারেকাছে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থাকবে না। সে জন্য তিনি সবার সহযোগিতা চান। বিভ্রান্তি ছড়িয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের চলার পথ যাতে বিঘ্নিত করা না হয়, সে জন্য সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে উপাচার্য বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। ভুলত্রুটি হতেই পারে। শিক্ষকেরা সব সময় শিক্ষকের জায়গা থেকে, বাবা-মায়ের জায়গা থেকে অভিভাবক হিসেবে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে সবকিছু দেখবেন।’

বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আজ সকাল ১০টায় প্রশাসন ভবন-২-এর সামনে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ১০টা ১০ মিনিটে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান উপাচার্য, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। পরে সেখান থেকে শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রা ও বিভিন্ন কর্মসূচিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম লক্ষ করা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের উপাচার্যের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা স্লোগানের মাধ্যমে তুলে ধরতে দেখা গেছে।

ফরিদ উদ্দিন আহমেদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে সহযোগিতা করায় তাদের প্রতি শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এর আগে গতকাল রোববার জরুরি সিন্ডিকেট সভায় আজ সোমবার থেকে হল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে আন্দোলন চলাকালে গত ১৬ জানুয়ারি ক্লাস, পরীক্ষা ও হল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। তবে আন্দোলনকারীরা হল বন্ধের নির্দেশনা না মেনে হলে ছিলেন। আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে অনলাইনে ক্লাস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।