• ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 413
অস্ত্রবাজি করে দরপত্র ছিনতাই: যুবলীগ নেতাসহ আটক ৪

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ‘অস্ত্র’ ধরে জোরপূর্বক দুই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের দরপত্রের শিডিউল ছিনতাই হওয়ার ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে জেলা সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এহসানুল হক উজ্জ্বলসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে ও ৯টা ৪৬ মিনিটে ওই হাসপাতালে পৃথক এ ঘটনাটি ঘটে।

ওই হাসপাতাল সূত্র জানা যায়, এদিন সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে এমএসআর (যন্ত্রপাতি, আসবাবপত্র, ওষুধপত্র) ইত্যাদি কেনার জন্য দুই কোটি টাকার কাজের দরপত্রের শিডিউল জমা দেওয়ার দিন ধার্য ছিল। আজ সকালে জুয়াইরিয়া ইন্টারন্যাশনাল নামক ঢাকার একটি কোম্পানির প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান ওই হাসপাতালে দরপত্রের শিডিউলটি জমা দিতে আসেন। তিনি হাসপাতালের তিনতলার প্রশাসনিক ভবনে ঢোকার আগেই একদল যুবক তার গতিরোধ করে ‘অস্ত্র’ ধরে জোরপূর্বক হাতে থাকা দরপত্রের শিডিউল এবং স্যাম্পল ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এরপর আরেকটি দরপত্র একই কায়দায় ছিনতাই করা হয়।

মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘বর্তমান সরকারের আমলে দরপত্রের শিডিউল ছিনতাই হওয়ার ঘটনা বিরল। তাই এ ঘটনায় তিনি বিস্মিত। তিনি দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান এবং পুনঃটেন্ডারের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানান।

জানা গেছে, ছিনতাইকারীরা মোস্তাফিজুর রহমানকে প্রাণনাশের হুমকি দিলে তিনি সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন।

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের উপ-পরিচালক (তত্ত্বাবধায়ক) ডা. আনিসুর রহমান বলেন, হাসপাতালের এমএসআর (যন্ত্রপাতি, আসবাবপত্র, ওষুধপত্র) ইত্যাদি কেনার জন্য দুই কোটি টাকার কাজের দরপত্রের শিডিউল জমা দেওয়ার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু আজ সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে ও ৯টা ৪৬ টানাহেঁচড়া করে দুইটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের দরপত্রের শিডিউল ছিনতাই হয়েছে। এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনাটি আমরা পুলিশকে অবহিত করেছি।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। তবে, এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। আমরা পুরো বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি।