• মার্চ ৩, ২০২২
  • জাতীয়
  • 369
‘নাবিক হাদিসুরের মরদেহ জাহাজেই সংরক্ষণ করা হয়েছে’

নিউজ ডেস্কঃ নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ইউক্রেনে আটকে পড়া বাংলাদেশি জাহাজে রকেট হামলায় নিহত হাদিসুরের মরদেহ জাহাজেই সংরক্ষণ করা হয়েছে। এছাড়া জীবিত ক্রুদের কবে ফিরিয়ে আনা হবে সেটা যুদ্ধ পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে।

বুধবার (২ মার্চ) স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টায়) বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজে রকেট হামলা হয়। এতে হাদিসুর মারা যান। হাদিসুর ওই জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

হাদিসুরের মরদেহ ছিন্নভিন্ন হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে নৌ প্রতিমন্ত্রী বলেন, যেহেতু সে সরাসরি আক্রান্ত হয়েছিল তাই অনেকেই ধারণা করেছেন তার দেহ পুড়ে গেছে। হ্যাঁ, শরীরের কিছু অংশ পুড়ে গেছে। কিন্তু হাদিসুর আমাদের সংরক্ষণে আছে। আমরা তাকে সংরক্ষণ করতে পেরেছি। এটুকু নিশ্চিতভাবে বলতে পারি।

হাদিসুরের মরদেহ কবে নাগাদ বাংলাদেশে আসতে পারে? জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এটা তো বলা মুশকিল। আমরা হাদিসুরের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছি। আমিই কথা বলেছি। যুদ্ধ পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে হাদিসুরকে কবে বাংলাদেশে নিয়ে আসতে পারবো। ওই স্থানের পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যেতে পারে।

তিনি বলেন, দুই পক্ষের কথা বার্তার মধ্যে ভালো কিছু দেখছি না। যদি ভালো হয়ে যায় তাহলে নিশ্চিতভাবে আমরা হাদিসুর ও বাকিদের নিরাপদে দেশে নিয়ে আসতে পারবো।