• মার্চ ৪, ২০২২
  • জাতীয়
  • 305
১২১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকবে আ.লীগ: রেজা কিবরিয়া

নিউজ ডেস্কঃ ‘আওয়ামী লীগ সরকারকে হয়তো এই দেশের মানুষ চিরকালের জন্য দূর করে দেবে। ১২১ বছরেও আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচনে জিতবে না। এর আগে তারা ছিল ২১ বছর ক্ষমতার বাইরে। এবার ১২১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকবে।’

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর আওয়ামী লীগ ২১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকলেও এবার তারা ক্ষমতা ছাড়লে ১২১ বছর আর সরকার পরিচালনায় ফিরতে পারবে না বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া।

নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে শুক্রবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ করতে না পেরে বিক্ষোভ শেষে রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে এসে রেজা এমন মন্তব্য করেন।

বিকেলে পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচিতে যোগ দিতে শহীদ মিনারে যাওয়ার সময় শাহবাগে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন ডাকসুর সাবেক ভিপির উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত দলটির নেতাকর্মীরা। সেখানে পুলিশের পিটুনিতে তিনজন আহত হন বলে জানানো হয়েছে।

বাধা পেয়ে শাহবাগ, জাতীয় প্রেস ক্লাব, পল্টন, গুলিস্তান পর্যন্ত মিছিল করেন নেতাকর্মীরা। এরপর গুলিস্তান থেকে ফের পল্টন, বিজয়নগর হয়ে কাকরাইল মোড়ে সড়কের ওপর বসে পড়েন নেতাকর্মীরা।

কাকরাইল মোড়ে সমাবেশে রেজা বলেন, ‘পুলিশ আমাদের বাধা দেয়, আমরা এখানে আসতে বাধ্য হয়েছি। আমরা কিন্তু ছাড়ব না। যে কোনো বাধা আমরা অতিক্রম করব। আমরা এই সরকারকে সরিয়ে জনগণের দাবি আদায় করব।’

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এই সরকারের এখনও একটা সুযোগ আছে ভদ্রভাবে চলে যাওয়ার। তাদের ষোলো আনা মানসম্মান তো নেই, কিন্তু দুই আনা তো এখনও আছে। সেই সম্মান নিয়ে যেন তারা চলে যান। না হলে আপনারা দেখবেন আপনাদের এক আনা মানসম্মানও আর থাকবে না।’

রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারকে হয়তো এই দেশের মানুষ চিরকালের জন্য দূর করে দেবে। ১২১ বছরেও আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচনে জিতবে না। এর আগে তারা ছিল ২১ বছর ক্ষমতার বাইরে। এবার ১২১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকবে।’

শাহবাগ থানায় দলের ২০ জনকে আটক করে রাখা হয়েছে অভিযোগ করে গণ অধিকার পরিষদের নেতা বলেন, ‘ওদের মুক্তি আমরা দাবি করছি এখান থেকে এবং আমাদের ৫০ জন আহত হয়েছেন।’

পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘কোনো সরকার চিরকাল থাকে না। আমাদের সরকার হলে জনগণের সেবা আবার করতে হবে। আপনারা সে জন্য প্রস্তুত থাকুন। মনে রাখবেন, বেআইনি আদেশ পালন করার কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই।’

স্বেচ্ছায় কারাবরণের ঘোষণা নুরের

গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুরও এ সময় বক্তব্য রাখেন। তিনি পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় দলের আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি না দিলে স্বেচ্ছায় কারাবরণের ঘোষণাও দেন।

তিনি বলেন, ‘দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বগতির জন্য ঘরে ঘরে হাহাকার চলে। এর প্রতিবাদে আমরা রাস্তায় নেমেছি। পুলিশকে বারবার অনুরোধ করেছিলাম, আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করব, আমাদের ওপরে হামলা করেন না।

‘প্রশাসনের ভাইবোনদের বলতে চাই, আপনার এই সরকারের গোলামি করবেন না। এই সরকারের আয়ু শেষ হয়ে আসছে। এদের কেউ রক্ষা করতে পারবে না। আজকের মতো যদি জনগণ রাস্তায় নেমে আসে, তাহলে সপ্তাহের মধ্যে এদের পতন হবে।’

পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের সঙ্গে আমাদের কোনো ব্যক্তিগত শত্রুতা নেই। আমাদের কর্মসূচিতে যদি আপনারা অযাচিত হস্তক্ষেপ করেন তাহলে আমরা মেনে নেব না।’