• মার্চ ৫, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 301
সিলেটে নিত্যপণ্যের বাজার টালমাটাল

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটে প্রতি সপ্তাহেই বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে ভোজ্যতেল, ডিম, মাংস, শাক-সবজিসহ বেশ কয়েকটি পণ্যের দাম বেড়েছে।

ক্রেতাদের অভিযোগ, বাজার কারো নিয়ন্ত্রণে নেই। ফলে ব্যবসায়ীরা ইচ্ছামাফিক দাম বাড়াচ্ছে। এমনটি হলে সাধারণ মানুষের জীবনে অন্তহীন দুর্ভোগ নেমে আসবে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে সয়াবিন তেলের দাম। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন ভোজ্য তেলের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে একটি মহল বাজার অস্থিতিশীল করছে।

সিলেট নগরের মেডিকেল রোড ও মদিনা মার্কেটের খুচরা ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরে তেল কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধিরা চাহিদার তুলনায় তেল কম দিচ্ছেন। ফলে পাইকারি ব্যবসায়ীরা তেলের দাম বাড়াচ্ছেন।

এদিকে, গত সপ্তাহেও কাপড় ধোয়া ডিটারজেন্ট সার্ফ এক্সেল প্রতিকেজি ১৯৮ টাকায় বিক্রি হলেও এখন তা ২১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

শনিবার (৫ মার্চ) সিলেটের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভোজ তেলের পাঁচ লিটারের বোতল তেল আটশ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা গত সপ্তাহেও ৭৬৫-৭৭০ টাকায় বিক্রি হয়। এক লিটার বিক্রি হচ্ছে ১৮৫ টাকায়। আবার কেউ কেউ এরও বেশি নিচ্ছেন।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, মাছ, গরুর মাংসের দাম কেজিতে ১৫ টাকা বেড়েছে। সপ্তাহখানেক আগে গরুর মাংস ৫৮৫ টাকায় বিক্রি হলেও এখন বিক্রি হচ্ছে ছয়শ টাকায়। এছাড়া প্রতিকেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০-৭২০ টাকায়।

ফার্মের মুরগির ডিমেরও দাম বেড়েছে ডজনে পাঁচ টাকা। এক ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়। যা গত সপ্তাহেও বিক্রি হয়েছে ১০৫ টাকায়। এছাড়া ব্রয়লার মুরগি ১৬০-১৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বন্দরবাজার আড়তের ডিম বিক্রেতা আব্দুর রহমান জানান, সব ধরনের ডিমের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে। প্রতি ডজন লাল ডিম পাইকারি বাজারে ক্রয়মূল্য ১০৫ এবং খুচরা বাজারে তা ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। হাঁসের ডিম পাইকারি বাজারে ১৯৫ টাকা ও খুচরা বাজারে ২০০।

বন্দরবাজার ও কালিঘাট ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের মতো এ সপ্তাহেও পেঁয়াজের স্থিতিশীল রয়েছে। বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজিতে। প্রতিকেজি চিনি ৮০, বড় দানার মসুর ডাল ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে কেজিতে পাঁচ টাকা বেড়ে ছোলা বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়।

অপরদিকে, দেশি রসুন ৫০, আমদানি রসুন ১০০, দেশি আদা ৬০ টাকা, প্রতিকেজি শিম ও বেগুন দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০, ফুলকপি ও শসা প্রতিকেজি ৪০-৪৫, কাঁচামরিচ ৭০, কুমড়া ৪০-৫০ টাকা, মুলা ২০ এবং বাঁধাকপি, গাজর ও টমেটো ৩০-৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

বন্দর বাজারের সবজি ক্রেতা রুহেল আহমদ বলেন, বাজারে প্রতিদিনই পণ্যের দাম বাড়ছে। সকালে যে সবজি ৪০ টাকায় কিনি, বিকালে তা হয়ে যাচ্ছে ৪৫। কিছু বললে ব্যবসায়ীরা বলেন আমরাও বর্ধিত দামে কিনেছি।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় উপ-পরিচালক মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, ভোজ্যতেল নিয়ে কয়েকদিন থেকে কিছুটা অস্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে। তবে কেউ কৃত্রিম সঙ্কট তৈরির চেষ্টা করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।