• মার্চ ১৯, ২০২২
  • মৌলভীবাজার
  • 278
মোমবাতি থেকে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিঃস্ব হল ৬ পরিবার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নে পবিত্র শবে বরাতের রাতে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) পবিত্র শবে বরাতের শেষ রাতে যখন সকল পুরুষ মানুষ মসজিদে ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন ছিলেন তখন উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নের সাদিপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। অগ্নিকাণ্ডে জেলে সম্প্রদায়ের ৬ পরিবার নিঃস্ব হয়ে পড়েছে।

জানা যায়, ভূকশিমইল ইউনিয়নের সাদিপুর এলাকায় পবিত্র শবে বরাতের শেষ রাতে ৪টার দিকে আকস্মিকভাবে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। তখন বাড়িঘরে একমাত্র মহিলারা ছাড়া সকল পুরুষ মানুষ মসজিদে ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন ছিলেন। ওই মুহূর্তে সাদিপুরের বাসিন্দা বদরুল মিয়া ওরফে বাদাইর টিনসেডের ঘরে অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হয়ে জেলে সম্প্রদায়ের পাশাপাশি ৬টি পরিবারের ঘর মালামালসহ আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে মসজিদ থেকে মানুষজন জড়ো হয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। ততক্ষণে ৬টি পরিবারের ঘরসহ কাপড়চোপড়, আসবাবপত্র, দুইটি পানির মেশিন ছাড়াও ৬টি ছাগল ও অসংখ্য হাঁস-মোরগ এবং ঋণ করে উঠানো ময়নুল মিয়ার নগদ ৪৮ হাজার টাকা আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়।

আগুনের খবর পেয়ে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই ৬টি পরিবারের সবকিছু আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ভূকশিমইল ইউনিয়নের (সাদিপুর এলাকার) ইউপি সদস্য সামছুল আলম সমছু জানান, পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে ঘরে জ্বালিয়ে রাখা মোমবাতির আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

অগ্নিকাণ্ডে জেলে সম্প্রদায়ের ছয় ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন- বদরুল মিয়া ওরফে বাদাই, মনসুর মিয়া, ময়নুল মিয়া, মুমিন মিয়া, বাচ্চু মিয়া ও বিরই মিয়া। আগুনের খবর পেয়ে ভূকশিমইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান মনিরসহ তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিঃস্ব অসহায় ৬ পরিবারকে তাদের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন বলে জানান।

ইউপি সদস্য সমছু নিঃস্ব ৬ পরিবারকে অবিলম্বে সরকারি সহায়তা দিয়ে পুনর্বাসনের জন্য মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক ও কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।