• মার্চ ২০, ২০২২
  • বিজ্ঞপ্তি
  • 303
বিয়ানীবাজারে প্রবাসীর বাড়ীর দেওয়াল নির্মাণে বাধা, সন্ত্রাসী হামলায় আহত ১

নিউজ ডেস্কঃ বিয়ানীবাজার উপজেলার ঘড়ুয়া গ্রামে নিজ মালিকানাধীন পৈতৃক ভুমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মান করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলা ও বাধার শিকার হয়েছেন প্রবাসী মোস্তাক আহমদ ও কয়েকজন শ্রমিক। তিনি বিয়ানীবাজার ঘড়ুয়া গ্রামের মৃত বশির উদ্দিন আহমদের ছেলে।

গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে প্রবাসী মোস্তাক আহমদ বাড়ীর দেওয়াল নির্মাণ কাজ শুরু করলে প্রতিপক্ষ সৈয়দ খুদবা হইদর পাড়ের মৃত শামসুল আলীর ছেলে সৈয়দ আবদুল জব্বার, ঘড়ুয়া গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে মুহিদুল ইসলাম তুহিন, আজারুল ইসলাম রুহিন ও জাহানারা বেগম সহ কতিপয় সন্ত্রাসী বাধা প্রদান করে। এসময় বাড়ীর মালিক মোস্তাক আহমদ বাধা দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তাকে গালি গালাজ শুরু করেন অভিযুক্তরা। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মোস্তাক আহমদ ও তার শ্রমিকদের উপর হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসী হামলায় মোস্তাক আহমদের বাড়ীর কেয়ার টেকার আতাউর রহমান (৬০) গুরুতর আহত হন। তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে প্রবাসী মোস্তাক আহমদ বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে দায়েরকৃত মামলায় আদালত তাদের পক্ষে আদেশ দিয়েছেন। তার বাড়ীর রাস্তাও রেকর্ডেট।
তিনি জানান, প্রবাসীরা দেশে এসে নানান সমস্যা ও হয়রানির মধ্যে পড়ে যান। যে ভাবে এসিড নিক্ষেপের ঘটনার কাঠোর আইন করায় এসব ঘটনা এখন ঘটছেনা বললেই চলে। ঠিক সেভাবে নিরীহ প্রবাসীদের স্বার্থ সুরক্ষায় বিশেষ আইন প্রনয়ন করা হোক যাতে করে প্রবাসীরা দেশে বিনিয়োগে আগ্রহী হন, নিরাপদ থাকেন ও ন্যায় বিচার পান।
বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।