• মার্চ ২৪, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 178
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধগতির প্রতিবাদে সিলেটে বিএনপির প্রতীকী গণঅনশন

নিউজ ডেস্কঃ সিলেট মহানগর বিএনপির আহবায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালি পংকি বলেছেন, সরকার জানমালের পাশাপাশি দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধগতির নিয়ন্ত্রণে চরম ব্যর্থ হয়েছে। সকল ব্যর্থতার দায়ভার নিয়ে এই অবৈধ সরকারের পদত্যাগ করা উচিত।

বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবি করে তিনি বলেন, সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে বিনা চিকিৎসায় বন্দি করে রেখেছে। বিএনপি নেতৃবৃন্দকে গুম, খুন, হামলা, মামলা দিয়ে সরকার অবৈধভাবে টিকে থাকতে চায়, বিএনপির একজন নেতাকর্মী জীবিত থাকতে সেটা সম্ভব হবে না। দেশের গনতন্ত্রমুক্তিকামী জনগন কে নিয়ে এই সরকারের বিরুদ্ধে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে এবং পদত্যাগে বাধ্য করা হবে।

তিনি ২৪ মার্চ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সিলেট মহানগর বিএনপির প্রতীকী গণঅনশন কর্মসূচির সভাপতির বক্তব্যে এই কথাগুলো বলেন।

সিলেট নগরীর কেন্দ্রীয় শহিদ সকাল ১০টার সময় শুরু হওয়া প্রতীকী গণঅনশন কর্মসূচীতে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মিফতাহ্ সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন মহানগর বিএনপির আহবায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, সুদীপ রঞ্জন সেন বাপ্পু, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ, সালেহ আহমদ খসরু, সিলেট জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য মামুনুর রশীদ মামুন, মহানগর বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য শামিম মজুমদার, মাহবুব চৌধুরী, ডা. নাজমুল ইসলাম, আবুল কালাম, মহানগর শ্রমিকদলের সভাপতি ইউনুস মিয়া, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক এমদাদুল হক স্বপন, মহানগর কৃষক দলের সাবেক সদস্য সচিব মারুফ আহমদ টিপু, মহানগর জাসাসের ফিরোজ আহমদ, বিএনপি নেতা উজ্জল রঞ্জন চন্দ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর বিএনপি নেতা বদরুদ্দোজা বদর, ডা. আশরাফ আলী, নিগার সুলতানা ডেইজি, খসরুজ্জামান খসরু, আব্দুল জব্বার তুতু, শফিকুর রহমান টুটুল, শফিক নুর, আব্দুস সোবহান, কামরুজ্জামান দিপু, ময়নুল হক চৌধুরী, কয়েস আহমদ সাগর, ময়নুল হক স্বাধীন, আব্দুল ওয়াদুদ মিলন, আজমল হোসেন, মানিক মিয়া রফিকুল ইসলাম, সালাহ উদ্দিন রিমন, মির্জা সম্রাট হোসেন, সৈয়দ সরওয়ার রেজা, আব্দুল হাসিম জাকারিয়া, কল্লোল জ্যোতি বিশ্বাস জয়, মনজুর হোসেন, জামাল আহমদ খান, রুবেল বক্স, কাউসার হোসেন রকি, পিয়ার উদ্দিন পিয়ার, আলতাফ হোসেন টিটু, ডা. এম এ হক, লুৎফুর রহমান, সৈয়দ রহিম আলী রাসু, ইফতেখার আহমদ বিপুল, সেলিম আহমদ মাহমুদ, দুলাল আহমদ, আবুল কাশেম, সোহেল আহমদ, উবায়দুর রহমান সজিব, ইসরাত জাহান, এম সিরাজ উদ্দিন, হাফিজুর রহমান, সাজু গাজী, সাকের আহমদ, শেখ মো. জয়নাল আবেদীন, মাহবুবুর রহমান মন্তাজ, মলয়,মনির আহমদ, এ কে,এম শাহজাহান, আব্দুল মুকিত, মহিলাদল নেত্রী রেহানা ফারুক শিরীন, ছাত্রদল নেতা সদরুল ইসলাম লোকমান, কাউসার আহমদ হৃদয়, জাসিম উদ্দিন রাফি, সুলতান আহমদ, শরিফ আহমদ, কাওসার আহমদ শিবলু প্রমুখ।

প্রতীকী গণঅনশন শেষে দুপুর ১টার সময় একজন রিকশা শ্রমিক সিলেট মহানগর বিএনপির আহবায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালি পংকি, সদস্য সচিব মিফতাহ্ সিদ্দিকীসহ সকল নেতৃবৃন্দকে পানি পান করিয়ে অনশন ভঙ্গ করান।