• মার্চ ২৬, ২০২২
  • জাতীয়
  • 208
স্বাধীনতা দিবসে বিএনপির ওপর আ.লীগের হামলা, আহত ১৫

নিউজ ডেস্কঃ নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলায় মহান স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি পালনের সময় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হামলায় বিএনপির অন্তত ১৫ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে আটজন গুরুতর জখম হয়েছেন বলে জানা গেছে।

শনিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার ধান মহল রোডে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহতরা হলেন- উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক আ. মতিন (৫৫), যুবদলের চন্দন (৩৭), মো. আলমগীর (৩৫) ও কামরুল (৩২), স্বেচ্ছাসেবক দলের আরাফাত (২৬), ছাত্রদলের শেখ রবিন (২৮), তমাল হাসান (২৫) ও সারোয়ার (৩০)।

উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা সাইদুর রহমান ভূঁইয়া জানান, ‘২৬ মার্চ উপলক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণের জন্য আমরা শান্তিপূর্ণভাবে যাচ্ছিলাম। পথে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পলাশ কান্তি বিশ্বাসের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা পেছন থেকে অতর্কিতে আমাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ নীরব দর্শকের ভূমিকায় ছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, হামলায় আমাদের ১৫-২০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক আ. মতিন ও ছাত্রদলের তমাল হাসানের মাথা ফেটে গেছে, ছাত্রদলের সারোয়ারের হাত ভাঙাসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের ছাত্রদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আটজন নেতা-কর্মীর গুরুতর জখম হয়েছেন। তারা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আহত অন্যরা স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

তিনি আক্ষেপ করে আরও বলেন, ‘স্বাধীন দেশে ২৬ মার্চের কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হামলায় বিএনপির কর্মীদের জখম হয়ে হাসপাতালে যেতে হয়। এদিনটিতেও আমরা আমাদের কর্মসূচি স্বাধীনভাবে পালন করতে পারি না। প্রতিনিয়ত রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনে প্রতিপক্ষের দ্বারা এ ধরনের হামলার শিকার হতে হচ্ছে বিএনপিকে।’

কলমাকান্দা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পলাশ কান্তি বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘আরোপিত অভিযোগ সঠিক নয়। স্বাধীনতা দিবসে একাজ আমি কি করে করি’। পরে তিনি সংযোগ কেটে দেন।

এ বিষয়ে কলমাকান্দা থানা ওসি মো. আবদুল আহাদ খানের সরকারি নাম্বারে একাধিকবার ফোন দেয়া হলে তিনি কল কেটে দেয়াতে মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।