• মার্চ ৩১, ২০২২
  • আন্তর্জাতিক
  • 201
ইউক্রেন ছেড়েছে ২০ লাখ শিশু, অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুত আরও ২৫ লাখ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন ৪০ লাখেরও বেশি ইউক্রেনীয়। সর্বাত্মক হামলার মুখে প্রাণ বাঁচাতে ঘর-বাড়ি ছেড়ে প্রতিবেশী দেশগুলোতে শরণার্থী হওয়া এসব মানুষের মধ্যে শিশুদের সংখ্যা ২০ লাখেরও বেশি বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ।

এছাড়া বাড়িঘর হারিয়ে অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছে আরও ২৫ লাখ শিশু। বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার জাতিসংঘ জানিয়েছে, যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইউক্রেনের ৪০ লাখেরও বেশি মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। আর এরপরই জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) জানায়, নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে দেশ ছেড়ে পালানো বিপুল সংখ্যক মানুষের মধ্যে শিশুদের সংখ্যা ২০ লাখেরও বেশি।

ইউনিসেফ আরও জানিয়েছে, রুশ সামরিক অভিযানের কারণে ইউক্রেনের আরও ২৫ লাখ শিশু তাদের বাড়িঘর হারিয়ে অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছে। অর্থাৎ ইউক্রেনের ৬০ শতাংশ শিশুকেই তাদের বাড়ি ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে।

এদিকে মানবাধিকার বিষয়ক জাতিসংঘের হাইকমিশনার ইউএনসিএইচআর’র সাথে বুধবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ইউনিসেফ বলেছে, ইউক্রেন থেকে প্রতিবেশী দেশগুলোতে আশ্রয় নেওয়া শরণার্থীদের অর্ধেকই শিশু।

ইউনিসেফ বলছে, ১১ লাখেরও বেশি শিশু পোল্যান্ডে আশ্রয় নিয়েছে। এছাড়া রোমানিয়া, মলদোভা, হাঙ্গেরি, স্লোভাকিয়া এবং চেক প্রজাতন্ত্রেও আশ্রয় নিয়েছে কয়েক হাজার শিশু।

ইউএনএইচসিআর’র তথ্য অনুযায়ী, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে শতাধিক শিশু নিহত হয়েছে এবং আরও ১৩৪ জন আহত হয়েছে। যদিও হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা এর চেয়ে আরও অনেক বেশি হতে পারে বলে মনে করছে সংস্থাটি।