• এপ্রিল ৪, ২০২২
  • মৌলভীবাজার
  • 352
কমলগঞ্জের ব্যবসায়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় খুন

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ফার্নিচার ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান সুমনকে (২৮) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার (৪ এপ্রিল) ভোরে নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

নিহত আতিকুর রহমান সুমন কমলগঞ্জ পৌর এলাকার আলেপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে। সুমনের মৃত্যুর ঘটনায় কমলগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। সুমনের বৃদ্ধা মা রহিমা খাতুন সন্তান হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে সুমনের সহযোগী সোহেল মিয়াসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক সোহেল কমলগঞ্জ পৌর এলাকার আলেপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা বলেন, গত ৮/১০ বছর ধরে নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে বসবাস করে আসছেন সুমন। বাজারে তার একটি ফার্নিচারের দোকান আছে। আগের দিন রাতে তার দোকানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। সোমবার ভোরে তাকে গুলি করে হত্যা করে।

নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রশীদ জানান, বাঘাউড়া গ্রামের বাজারে সুমনের একটি ফার্নিচারের দোকান আছে। তিনি ওই গ্রামের একটি বাড়িতে বেশ কয়েক বছর ধরে ভাড়া থাকতেন। সোমবার ভোরে সেহরি খাওয়ার জন্য ঘুম থেকে ওঠেন তিনি। সেহরি খেয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গেই কে বা কারা তাকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে তাকে খুন করা হয়েছে। জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

কমলগঞ্জ পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন শাকিল নবীনগর থানা থেকে জানান, সুমনের মরদেহ নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে নিজ এলাকায় পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সুমনের সহযোগী সোহেলসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করে নবীনগর থানায় নিয়ে এসেছে।