• এপ্রিল ৮, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 167
বিআরটিএর দুই কর্মকর্তার প্রত্যাহারের দাবিতে সিলেটে পরিবহন ‘ধর্মঘটের’ ডাক

নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) সিলেট কার্যালয়ের দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন পরিবহনশ্রমিকেরা। এই দুই কর্মকর্তাকে প্রত্যাহারের দাবিতে আগামী রোববার সকাল থেকে সিলেট জেলায় অনির্দিষ্টকাল পর্যন্ত কর্মবিরতির ডাক দিয়েছেন শ্রমিকেরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের জরুরি সভায় কর্মবিরতির সিদ্ধান্ত হয়। সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর কর্মবিরতির সিদ্ধান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত বুধবার পরিবহনশ্রমিক দুই নেতাকে বিআরটিএ কার্যালয়ে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ আনা হয়েছিল। ওই দিনই কর্মবিরতিতে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন শ্রমিকনেতারা। গতকাল সভার মাধ্যমে কর্মবিরতির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

গতকাল অনুষ্ঠিত সভায় সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের কার্যকরী সভাপতি ময়নুল ইসলাম সভাপতিত্ব করেন। সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আকবরের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. জাকারিয়া আহমদ।

পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভায় বক্তারা বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিআরটিএ সিলেটের সহকারী পরিচালক মো. সানাউল হক ও রেকর্ড রুমের কর্মচারী দেলোয়ার হোসেনকে প্রত্যাহার করতে হবে। এই দাবি মানা না হলে রোববার সকাল থেকে সিলেটে পরিবহনশ্রমিকেরা কর্মবিরতি পালন করবেন।

সভায় আরও বক্তব্য দেন সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি রনু মিয়া, সিলেট জেলা ট্রাক পিকআপ কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আলী, সিলেট জেলা ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মনির আহমদ, সিলেট জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজাদ মিয়া, সিলেট জেলা অটোরিক্সা অটোটেম্পু শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি খলিল খান প্রমুখ।

এর আগে বুধবার দুপুরে বিআরটিএ সিলেট কার্যালয়ে দুই পরিবহনশ্রমিকনেতাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে রোববার থেকে জেলায় কর্মবিরতির ঘোষণা দিয়েছিলেন শ্রমিকেরা। সে সময়ও পরিবহনশ্রমিকনেতারা অভিযোগ করেছিলেন, বিআরটিএ সিলেট কার্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতি হচ্ছে। শ্রমিকেরা লাইসেন্স নবায়নসহ জরুরি কাজে বিআরটিএর সেবা নিতে গেলে প্রায়ই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উৎকোচ দাবি করেন।

অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ময়নুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মুহিমকে বিআরটিএ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. সানাউল হক ও রেকর্ড কিপার দেলোয়ার অসদাচরণ করেছেন বলে অভিযোগ করেন শ্রমিকেরা।
তবে বিআরটিএ কর্মকর্তা মো. সানাউল হক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ অস্বীকার করে ওই দিন বলেছিলেন, পরিবহন শ্রমিক নেতারা ভুল ও অসত্য কথা বলছেন।