• এপ্রিল ২৯, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 215
সিলেটের ঐতিহাসিক শাহী ঈদগাহ প্রস্তুত, পরিদর্শনে মেয়র

নিউজ ডেস্কঃ মুসলিম উম্মার সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সিলেটের ঐতিহাসিক শাহী ঈদগাহ ময়দানে।

শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২-৩ মে মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রথম বৃহত্তম পবিত্র উৎসব-ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হবে। নতুন পোশাক পরিধান করে, জায়নামাজ হাতে ঈদগাহ ময়দানে ছুটে যাবেন মুসল্লিরা। এবার সেই চিরাচরিত দৃশ্যের অবতারণা ঘটবে শাহী ঈদগাহের মাঠে। চিরচেনা কোলাহল আর লাখো মুসল্লির পদচারণা ঘটবে সিলেট ঈদগাহ ময়দানে।

সে লক্ষ্যে চলছে শেষ মুহূর্তের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, রং করার কাজ।

প্রাণঘাতী করোনার দাপট ছিলো পুরো দুই বছর। ফলে করোনাকালের গত ৪টি ঈদেই সিলেট শাহী ঈদগাহে ছিলো সুনসান নিরবতা।

ঈদের দিনগুলোতে মুসল্লিদের বুকে ধারণ করতে না পেরে নিরবে কাঁদছিলো যেন ধর্মীয় অনুভূতি জড়িত সিলেটের ঐতিহ্যবাহী এই ঈদগাহটি।

এবার করোনার দাপট কাটিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে নগরের শাহী ঈদগাহে। এরইমধ্যে জামাতের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। সিলেট নগরের শাহী ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়।

সরেজমিনে ঘুরে দেখাযায় শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন শ্রমিকরা।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কজে নিয়জিত এক শ্রমীক বলেন, ঈদগাহর আশেপাশের সকল ময়লা আবর্জনা ইতিমধ্যেই পরিষ্কার করা হয়ে গেছে। গেইটগুলোর রং করা হচ্ছে, আগামীকালের মধ্যে কাজ শেষ হয়ে যাবে।

স্থানীয় এক ব্যক্তি বলেন, করোনার করণে গত দুই বছর ঈদ জামাত আয়োজন হয়নি। এবার ঈদ জামাত আয়োজন হওয়ায় খুশি তারা।

শুক্রবার জুম্মা নামাজ শেষে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর ঈদগাহ ময়দান পরিদর্শণে যান।

মেয়র বলেন, সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে, আগামীকালের মধ্যে ময়দান পুরোদমে জামাতের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে। ঈদের দিন তিন স্তরের নিরপত্তা ব্যবস্থা থাকবে বলে জানান মেয়র।

ব্যক্তিগত গাড়িগুলোকে ঈদগাহ ময়দানের আশেপাশে না রাখার আহবান জানা তিনি।