• জুন ৯, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 59
ওসমানীনগরে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে কয়েক দফা সংঘর্ষ, দোকানপাট-গাড়ি ভাঙচুর

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের ওসমানীনগরের তাজপুর ডিগ্রি কলেজের দুই শিক্ষার্থীর দ্বন্ধের জেরে উপজেলার ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কয়েক দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় অর্ধশতাধিক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার তাজপুর বাজারে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের সময় প্রায় এক ঘন্টা সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিলো। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে কয়েকটি যানবাহনও ভাঙচুর করা হয়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করেছে। যে কোনো সময় আবারও দুই গ্রুপ সংঘর্ষের লিপ্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ অবস্থায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আদেশে শুক্রবার (১০ জুন) সকাল ১০টা পর্যন্ত তাজপুর বাজার এলাকার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ষোষণা করা হয়েছে।

জানা গেছে, তাজপুর ডিগ্রি কলেজ দুই শিক্ষার্থীর দ্বন্ধের জের ধরে ছাত্রলীগদের দুই গ্রুপের মধ্যে বৃহস্পতিবার দুপুরে ১২টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাস উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে দুটি গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পরে বেলা দুইটার দিকে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তাজপুর বাজারে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এসময় উপজেলা ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা দুভাগে বিভক্ত হয়ে হামলা পাল্টা হামলা চালান। এক পর্যায়ে সংঘর্ষটি এলাকাভিত্তিক ছড়িয়ে পড়েলে বাজার এলাকার ব্যসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে ওসমানীনগর থানাপুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাটিচার্জ করে সংঘর্ষকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে বিকাল ৪ টার দিকে আরেক দফায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুই গ্রুপ। এসময় দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালানো হয়। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের প্রায় ২০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে, সংঘর্ষ চলাকালে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। তাজপুর বাজারের দুদিকে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। এর মধ্যে রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্সও ছিলো। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকায় চরম উত্তেজনা ও থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। সংঘর্ষ এড়াতে বাজার এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

ঘটনার পর থেকে আগামীকাল শুক্রবার সকাল ১০টা পর্যন্ত তাজপুর বাজারের সকল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষনা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিলিমা রায়হানা।

ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এস মইন উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে থানাপুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। পাশাপাশি বাজার এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এলাকা শান্ত রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারে থানাপুলিশ তৎপর রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •