• জুন ১২, ২০২২
  • শীর্ষ খবর
  • 54
বাবা-মার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় বিশ্বনাথের আ.লীগ নেতা পংকি খান

বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ দুই দফায় অনুষ্ঠিত জানাযার নামাজ শেষে নিজ গ্রামের মসজিদের নিকটস্থ বাবা-মার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খান।

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ‘জনতার খান সাহেব’র জানাযার নামাজে নেমে ছিল মানুষের ঢল। তাঁকে শেষ বিদায় জানাতে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ছুটে এসেছেন বিভিন্ন স্তরের মানুষ। পংকি খানকে শেষ বিদায় জানাতে আসা মানুষের চোখে-মুখে ছিলো শোকের ছায়া।

রোববার (১২ জুন) বেলা আড়াইটায় বিশ্বনাথ পৌর শহরের দারুল উলুম ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত মরহুমের ১ম জানাযার নামাজে ইমামতি করেন সিলেট সুবহানীঘাটস্থ হযরত শাহজালাল দারুস সুন্নাহ ইয়াকুবিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা কমর উদ্দিন চৌধুরী। পরে মরহুমের নিজ গ্রাম পৌরশহরের জাহারগাঁও গ্রামস্থ জাহারগাঁও জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে ২য় জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন হাফিজ আব্দুশ শহিদ।

জানাযার নামাজের পূর্বে পংকি খানের কফিনে পর্যায়ক্রমে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠন, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ, বিশ্বনাথ পৌরসভা, বিশ্বনাথ থানা প্রশাসন, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগ, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাব, বিশ্বনাথ পৌর আওয়ামী লীগ, বিশ্বনাথ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, রামপাশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, খাজাঞ্চী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, উপজেলা ও পৌর কৃষক লীগ, উপজেলা ও পৌর শ্রমিকলীগ, উপজেলা যুবলীগ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, বিশ্বনাথ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ, উপজেলা বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

জানাযার নামাজ পূর্ব আলোচনা সভায় বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ সুমনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সিলেট-২ আসনের সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আশফাক আহমদ (সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান), অ্যাডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, শাহ মোসাহিদ আলী, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া, সাবেক চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মুহাম্মদ মুনতাসির আলী, বিশ্বনাথ সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মানিক মিয়া, সাবেক অধ্যক্ষ সিরাজুল হক, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শাহ আসাদুজামান আসাদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলী, কার্যনির্বাহী সদস্য ও রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বসির আহমদ, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মুহিবুর রহমান সুইট, বিশ্বনাথ পুরান বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল মিয়া, মরহুমের পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মরহুম আলহাজ্ব পংকি খানের জ্যেষ্ঠ পুত্র আজিজুর রহমান খান রাজু।

উল্লেখ্য, শনিবার (১১ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সিলেট নগরীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খান (৭৫)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ পুত্র, ২ কন্যা, নাতি-নাতনীসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

পংকি খান ছিলেন ৭১’র মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, বিশ্বনাথ প্রবাসী এডুকেশন ট্রাস্টের সিনিয়র ট্রাস্টি, বিশ্বনাথ সরকারি কলেজসহ বেশ কয়েক প্রতিষ্ঠানের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং উপজেলার সর্বজন শ্রদ্ধেয় মুরুব্বি।

এদিকে, পংকি খানের মৃত্যুতে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে ৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত কর্মসূচির ১ম দিন (১২ জুন) কালো ব্যাজ ধারণ এবং ২য় দিন (১৩ জুন) ও ৩য় দিন (১৪ জুন) দোয়া-মিলাদ মাহফিল। এছাড়া আজ (১২ জুন রোববার) পৌরশহরের পুরাণ বাজারের ব্যবসায়ীরা (জরুরি সেবা ব্যতীত) পংকি খানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশের অংশ হিসেবে সকাল ৬টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখেন।

অন্যদিকে মরহুম পংকি খানের প্রতিষ্ঠিত আল-হেরা শপিং সিটির ব্যবসায়ী তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশের অংশ হিসেবে ৩ দিন (১২-১৪ জুন) মার্কেট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •