• জুলাই ৭, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 209
কাজিরবাজারে ১০ লাখ টাকার ‘রাজা বাবু’

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের কাজিরবাজার কোরবানির হাটে ‘রাজা বাবুর’ দেখা মেলে। ফ্রিজিয়ান জাতের রাজা বাবু নামের গরুটির বয়স প্রায় চার বছর। সুনামগঞ্জের নারায়ণতলার বাসিন্দা ফয়েজ উদ্দিন (৪৮) নিজের খামারে গরুটি লালন–পালন করেছেন। এবারই প্রথম তিনি কোরবানির জন্য গরুটি হাটে তুলেছেন।

কালো আর সাদার মিশ্রণে বিশাল আকারের গরু রাজা বাবু। গরুটির খাবার আর রক্ষণাবেক্ষণকাজে ব্যস্ত রয়েছেন দুই ব্যক্তি। হাটে আসা বিভিন্ন বয়সের মানুষ রাজা বাবুকে দেখতে ভিড় জমিয়েছেন। গরুটি নড়াচড়া করে উঠলেই মাথায় হাত বুলিয়ে শান্ত করছিলেন ফয়েজ উদ্দিন। তাঁর দাবি, গরুটির ওজন ২৭ মণ। দাম হাঁকছেন ১০ লাখ টাকা।

ফয়েজ উদ্দিনের সঙ্গে সেখানে ছিলেন তাঁর ছোট ভাই মাসুদ আহমদ (৩৫)। তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার রাতে নৌপথে রাজা বাবুকে নিয়ে সিলেটে এসেছেন তাঁরা। নৌপথে আসায় কিছুটা কষ্ট হয়েছে। সিলেট নামার পর কিছুটা জিরিয়ে নিয়ে গতকাল বুধবার দুপুরের দিকে রাজা বাবুকে নিয়ে হাটে আসেন তাঁরা।

ফয়েজ উদ্দিন বলেন, তাঁর খামারে আরও একটি গরু রয়েছে। এ ছাড়া চারটি গাভি রয়েছে। চার বছর ধরে তিনি রাজা বাবুকে পালছেন। প্রতিদিন রাজা বাবু প্রায় এক হাজার টাকার খাবার খায়। এই গরুর পেছনে একজনকে পুরো দিন খাটতে হয়। খাবারের মধ্যে কাঁঠাল ও আম ভালোবাসে রাজাবাবু। এ ছাড়া কাঁচা ঘাস, ভুসি আর কাটা খড় ছাড়া অন্য কিছু মুখে তোলে না রাজা বাবু।

সুনামগঞ্জ থেকে নৌপথে সিলেট আসার পথে অনেকেই রাজা বাবুকে কেনার আগ্রহ দেখিয়েছেন। তবে দামে না মেলায় বিক্রি করেননি ফয়েজ উদ্দিন। তিনি বলেন, ‘সিলেট আসার সময় অনেকে রাজা বাবুর দাম করেছেন। খামারেও অনেকে কেনার জন্য দাম করেছেন। তবে ওই দামের সঙ্গে খরচের কোনো সমাঞ্জস্য নেই। এ জন্য বিক্রি করিনি। এখানে লাভজনক দাম পেলে বিক্রি করব।’