• জুলাই ২০, ২০২২
  • লিড নিউস
  • 193
এবার সিলেটে জলাবদ্ধতা নিরসনে স্পাইডার এস্কেভেটর

নিউজ ডেস্কঃ জলাবদ্ধতা নিরসণে ৮টি স্ট্রাইকিং টিম গঠন করার কথা জানিয়েছিলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

স্ট্রাইকিং টিমের অংশ হিসেবে বুধবার (২০ জুলাই) নগরীর ছড়া খাল পরিস্কার করতে নামানো হয়েছে স্পাইডার এস্কেভেটর। সকাল থেকেই নগরীর জেল রোডস্থ সওদাগরটুলা এলাকার খাল থেকে ময়লা পরিস্কার করতে দেখা যায় স্পাইডার এস্কেভেটর দিয়ে কাজ করা হচ্ছে। স্পাইডার এস্কেভেটরটি ছড়া খালের প্রতিটি পয়েন্টে ও ড্রেনগুলোর ময়লা পরিষ্কার করবে। এতে করে শহরের বিভিন্ন জায়গায় যে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে না বলে সিলেট সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা যায়।

এদিকে গত শনিবার রাতে সিলেট নগরীতে এক ঘণ্টার টানা প্রবল বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে নানা পদক্ষেপের অংশ হিসেবে স্ট্রাইকিং টিম গঠনের কথা জানিয়েছেন মেয়র। জলাবদ্ধতা ঠেকাতে এসব টিম কাজ করবে। জলাবদ্ধতা বিষয়ে নগর ভবনে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে নিজের বক্তব্যে ৮টি স্ট্রাইকিং টিম গঠনের কথা জানান মেয়র আরিফ।

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছিলেন, ‘গত তিনদিন আগে হঠাৎ করে প্রবল বর্ষণের কারণে সিলেট নগরীর প্রায় সব এলাকা নিমজ্জিত হয়। যে কারণে আমাদের অনেকের বাড়িঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নিমজ্জিত হয়। জলবায়ু পরিবর্তন বিশ্বব্যাপী একটি সমস্যা। আবহাওয়ার বিরূপ কারণে প্রকটভাবে পরিলক্ষিত হচ্ছে এই সমস্যা।’

‘গত শনিবার দিনে অস্বাভাবিক তাপদাহের পর রাতে অল্প সময়ে রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টির কারণে আকস্মিক দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে নগরবাসীকে। সেই দুর্ভোগের শিকার আমি নিজেও। যদিও আমার বাসা নগরীর মধ্যভাগে উঁচু এলাকায়। শনিবার রাতে ১১টা ২ মিনিট থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ৫৮ মিনিটে ৭০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। ওইদিন মোট ৬ ঘণ্টায় ১৬৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। যা সাম্প্রতিক সময়ে সিলেটে কম সময়ে বেশি বৃষ্টির রেকর্ড। এটিকে অতিপ্রাকৃতিক বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।’